খেলা-ধুলা

মারেকে বিদায় করে কোয়েরি সেমিতে

ম্যাচটা যখন চতুর্থ সেটে গড়াল তখনই ব্রিটিশ শিবিরে হতাশার শুরু। সবাই ধরেই নিয়েছিলেন পঞ্চম সেটে গড়াবে ম্যাচ। আর পাঁচ সেটে গড়ানো সর্বশেষ তিনটি ম্যাচেই পরাজিত হয়েছিলেন অ্যান্ডি মারে। তাই ব্রিটিশদের মধ্যে একটা শঙ্কা কাজ করছিল। সেই শঙ্কাই বাস্তবে রূপ নিল। বুধবার উইম্বলডন ওপেনের শেষ আটের লড়াইয়ে স্যাম কোয়েরির কাছে হেরে বিদায় নাম্বার ওয়ান তারকা মারে।

অল ইংল্যান্ড ক্লাবে প্রথম সেটে জিতে দারুণ কিছুরই ইঙ্গিত দিয়েছিলেন মারে। দ্বিতীয় সেটে জয় দিয়ে ঘুরে দাঁড়ান কোয়েরি। তৃতীয় সেটে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হলেও পরের দুই সেটে আমেরিকান তারকার কাছেই পাত্তাই পাননি এই স্কটিশ তারকা। শেষ পর্যন্ত কোয়েরির কাছে ৬-৩, ৪-৬, ৭-৬ (৭-৪), ১-৬, ১-৬ গেমে হেরে বিদায় নেন গত আসরের চ্যাম্পিয়ন মারে।

গত আট বছরে প্রথম আমেরিকান খেলোয়াড় হিসেবে কোনো গ্র্যান্ডস্লামের সেমিফাইনালে উঠলেন কোয়েরি। এর আগে সর্বশেষ ২০০৯ সালে উইম্বলডনের সেমিতে উঠেছিলেন অ্যান্ডি রডিক।

এই হারের ফলে নোভাক জোকোভিচের কাছে র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থান হারানোর ঝুঁকির মধ্যে পড়েছেন মারে। দ্বিতীয় শীর্ষ বাছাই নোভাক জোকোভিচ বুধবার রাতে অপর কোয়ার্টার ফাইনালে টমাস বার্ডিচের মুখোমুখি হবেন। উইম্বলডনের শিরোপা জিততে পারলেই মারেকে টপকে রাজত্ব ফিরে পাবেন জোকার।