জাতীয়

মধ্য ও নিম্নবিত্তের জন্য ২৫ হাজার ফ্ল্যাট নির্মাণ হবে

1রাজধানীর মিরপুরে মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্ত মানুষের জন্য প্রায় ২৫ হাজার ফ্ল্যাট নির্মাণ করা হবে বলে জানিয়েছেন গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন।

বৃহস্পতিবার মোহাম্মদপুরের এফ ব্লকে নির্মাণাধীন জাতীয় গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষের ফ্ল্যাট প্রকল্পের অগ্রগতি পরিদর্শনকালে এ তথ্য জানান তিনি। মোহাম্মদপুর এফ ব্লকে ১৬ তলা বিশিষ্ট ১৫টি অ্যাপার্টমেন্ট ভবনে ৯০০ ফ্ল্যাট নির্মাণ করা হচ্ছে।

ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেন, মিরপুরে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক ফ্ল্যাট হবে নিম্নবিত্ত মানুষের জন্য। অবৈধ দখলদাররা সরকারি সম্পত্তিতে বস্তি গড়ে তুলে নিম্নবিত্ত মানুষের কাছে উচ্চমূল্যে ভাড়া দেয়। এ কাজকে কেউ কেউ ‘মাস্তানরা বস্তিবাসীর বন্ধু’ বলে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। এটি কোনোভাইে গ্রহণযোগ্য নয়। সরকার নিম্নবিত্তের জন্য যে ফ্ল্যাট নির্মাণ করছে সেখানে তুলনামূলকভাবে বস্তির চেয়ে কম বা একইমূল্যে নিম্নবিত্তের মানুষ উন্নত আবাসন সুবিধা পাবে।

গণপূর্তমন্ত্রী বলেন, সরকার দেশের সব মানুষের আবাসন নিশ্চিত করতে কাজ করে যাচ্ছে। জাতীয় গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষ গঠনের আগে সেটেলমেন্ট বিভাগের মাধ্যমে ছোট ছোট প্লট করে তা বিতরণ করা হতো। আওয়ামী লীগ সরকারের ১৯৯৬-২০০১ মেয়াদে অল্প জমিতে পরিকল্পিত আবাসন গড়ে তোলার কৌশল গ্রহণ করে জাতীয় গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষ গঠন করে।

পরিদর্শনকালে মন্ত্রী প্রতিটি ভবনের নির্মাণ কাজ শেষে গ্রাহকদের কাছে হস্তান্তরের সময়সীমা বেধে দেন। এরমধ্যে তিনটি ভবন ফেব্রুয়ারি ২০১৭, দুইটি ভবন জুন ২০১৭, চারটি ভবন সেপ্টেম্বর ২০১৭, তিনটি ভবন জুন ২০১৮ এবং তিনটি ভবন ডিসেম্বর ২০১৮ এর মধ্যে গ্রাহকদের কাছে হস্তান্তর করা হবে। সময়সীমা কোনোভাবেই বাড়ানো যাবে না।

১৬ দশমিক ২৩ বিঘা জমির ওপর ১৩৯০ বর্গফুট ও ১১৯০ ফুট আয়তনের ফ্ল্যাট নির্মাণ প্রকল্প গ্রহণ করা হয়। কয়েকটি ভবনের জমির মালিকানা নিয়ে মামলা থাকা এবং দরপত্র আহ্বানের সময়ের তারতম্যের কারণে ফ্ল্যাট হস্তান্তর করতে সময়ের পার্থক্য হচ্ছে বলে জানানো হয়।

ভিডিওঃ আমার একসঙ্গে চার-পাঁচ জন পুরুষ দরকার : শ্রীলেখা

Add Comment

Click here to post a comment