অপরাধ/দুর্নীতি

মং পু মারমা অপহরণ মামলায় বান্দরবানে জনসংহতির ৬ নেতা আটক

indexবান্দরবানের আওয়ামী লীগ নেতা মং পু মারমা অপহরন মামলার পলাতক ৬ আসামিকে সেনাবাহিনীর জওয়ানরা আটক করেছে।
সেনাবাহিনীর বান্দরবান সদর জোন কমান্ডার লে. কর্নেল গোলাম মহি উদ্দিন হায়দার বৃহষ্পতিবার সন্ধ্যায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান, বৃহষ্পতিবার ৩ নভেম্বর বিকেলে নিয়মিত টহল দেবার সময় সদর উপজেলার দুর্গম দুলু পাড়া এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।
গত ১৩ জুন সদর উপজেলার জামছড়ি পাড়ায় নিজ বাড়ি থেকে সন্ত্রাসীরা অস্ত্রের মুখে আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতা ও ইউপি সদস্য মং পু মারমাকে তুলে নিয়ে যায়। গত ৫ মাসেও তার কোন সন্ধান মিলেনি।
ঐ ঘটনার পরদিন বান্দরবান জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে এই অপহরণের জন্যে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতিকে (পিসিজেএসএস) দায়ী করে একটি মামলা দায়ের করা হয়। মামলার পর থেকে পিসিজেএসএস এবং পাহাড়ি ছাত্র পরিষদসহ (পিসিপি) তাদের অঙ্গ সংগঠনসমুহের নেতা-কর্মীরা পালিয়ে বেড়াচ্ছে।
এর আগে বিভিন্ন অভিযানে পুলিশ ৩জনকে আটক করলেও বৃহষ্পতিবার একই দিনে ৬ জনের আটকের ঘটনা ঘটলো।
বৃহষ্পতিবার আটককৃতরা হচ্ছে : পিসিজেএসএস-এর বাঘমারা সাংগঠনিক থানা ইউনিটের সভাপতি গোপাল চাকমা (২৫), নোয়াপতং ইউনিয়ন ইউনিট সভাপতি ও ইউপি সদস্য উ বা চিং মারমা (৩৫), পিসিজেএসএস সদস্য মং থুই সাং মারমা (৩৯), পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ সদস্য মতিলাল চাকমা (১৬), শৈ নু মং মারমা (২০) এবং জনসংহতি সমিতির সদস্য দয়া মোহণ চাকমা (৪২)।
এ ব্যাপারে বান্দরবান সদর থানার ওসি রফিক উল্লাহ’র সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, মং পু অপহরণ মামলাভুক্ত ৬জনকে আটকের কথা পুলিশ জেনেছে। তবে বৃহষ্পতিবার সন্ধ্যে ৭টা পর্যন্ত তাদেরকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়নি।

Add Comment

Click here to post a comment