Advertisements
Default খেলা-ধুলা

ভারত ফাইনালে হারের ‘ষড়যন্ত্রে’ ফাঁস?

ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন হিসেবে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি খেলতে গিয়েছিল ভারত। বিরাট কোহলির দল খেলেছেও চ্যাম্পিয়নের মতোই। এক শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হারের কথা বাদ দিলে সেই প্রস্তুতি ম্যাচ থেকে শুরু করে ফাইনাল পর্যন্ত প্রতিটি ম্যাচে প্রতিপক্ষকে উড়িয়ে দিয়েছেন ভারতীয়রা। গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানকে তো রীতিমতো কাঁদিয়ে ছাড়ল কোহলিরা।

হিসেবের বাইরে থাকা সেই পাকিস্তানের বিপক্ষে ফাইনালে হেরে শিরোপা হাতছাড়া হয়েছে ভারতের। এতে তরুণ ওপেনার ফখর জামান ও পাকিস্তানি বোলিংয়ে প্রশংসায় ব্যস্ত প্রায় সবাই। তবে অনেকেই আবার ভিন্ন কারণ খোঁজার কাজে ব্যস্ত!

কাল ফাইনালে পাকিস্তানের বিপক্ষে ১৮০ রানের ব্যবধানে হেরেছে ভারত। ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছিল বলেই নাকি চিরশত্রুদের বিপক্ষে এতোবড় লজ্জা পেতে হয়েছে ভারতীয়দের!

কি সেই ষড়যন্ত্র? ভারতীয় গণমাধ্যমে বলা হচ্ছে, মাঠের খেলা শুরু হওয়ার আগে হোটেলে বড় বিড়ম্বনায় ফেলা হয়েছিল কোহলিদের! অধিনায়ক কোহলিসহ ভারতের বেশ কয়েকজন ক্রিকেটারের হোটেল রুমের এসি নাকি কাজ করছিল না আগের রাতে। আর এতে ঘুমের সমস্যা হয়েছে বলে দাবি ভারতীয় গণমাধ্যমের।

ঘন্টা খানেকের মধ্যেই এসি ঠিক করা হয়েছে উল্লেখ করা হলেও বলা হয়, এই সমস্যাটা ম্যাচে বড় প্রভাব ফেলেছে। একবার ঘুম ভেঙে গেলে ঘুম ধরতে চায় না, এমন কথা উল্লেখ করে ভারতীয় গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, এই কারণে মাঠে ক্লান্ত মনে হচ্ছিল ভারতীয় ক্রিকেটারদের। রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও রবিন্দ্র জাদেজাদের স্পিনকে ‘ক্লাব পর্যায়ের’ বোলিং মনে হচ্ছিল নাকি এই কারণেই!

এদিকে, ফাইনালের আগে পাকিস্তানের সাবেক ওপেনার আমির সোহেল বলেছিলেন, এই সাফল্য মাঠের ক্রিকেটে পায়নি পাকিস্তান, অন্য কেউ মাঠের বাইরে চাল চেলে পাকিস্তানকে সাফল্য পাইয়ে দিচ্ছি। আমিরের ওই কথা আর কোহলিদের এসি নষ্ট হয়ে যাওয়ার মধ্যে যোগসাজস খুঁজছেন অনেকে।

ভারতীয় গণমাধ্যমের প্রশ্ন, তাহলে কি এভাবে ষড়যন্ত্রের শিকার হলেন কোহলিরা? যাতে ফাইনাল হারতে হলো তাদের!

Advertisements