আন্তর্জাতিক

ভারতীয় বহরে যোগ হচ্ছে ১০০ জেট ফাইটার, ৪৬৪টি ট্যাংক

1aপাকিস্তান-ভারত সীমান্ত উত্তেজনার মধ্যেই সামরিক এবং আকাশে প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা আরো জোরদার করছে ভারত। নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহেই প্রতিরক্ষা শক্তি বৃদ্ধিতে বেশ কিছু বিল প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। প্রস্তাবনা অনুযাযী ভারতীয় বহরে যোগ হচ্ছে আরো একশতটি জেট ফাইটার এবং বিশেষ ক্ষমতা সম্পন্ন ৪৬৪টি ট্যাংক।

৭ নভেম্বর সোমবার ভারতীয় ডিফেন্স অ্যাকুইজিশন কাউন্সিলে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। প্রস্তাবনাগুলো পর্যালোচনা করেন দেশটি প্রতিরক্ষামন্ত্রী মনোহর পারিক্কর। ভারতীয় প্রতিরক্ষা পরিষদের এই বৈঠকে মোট ৮২টি হালকা কমব্যাট এয়ারক্রাফট (এমকেএ-১) কেনার সিদ্ধান্ত হয়। বলা হচ্ছে, এই ফাইটার বিমানটি আকারে অনেক ছোট এবং মাল্টিপারপাস সুপারসনিক প্লেন। ভারতীয় বিমান বাহিনী এবং নৌবাহিনীর এই অত্যাধুনিক বিমানগুলো ব্যবহার করবে।

জানা গেছে, সবমিলিয়ে ১০০টি ফাইটার জেট, হেলিকপ্টার এবং চার শতটি ট্যাংক যোগ হবে ভারতীয় বহরে। এর মধ্যে ট্যাংকগুলো রাশিয়া থেকে কেনা হবে। এই প্রজেক্টে মোট ব্যয় হবে ৮২ হাজার কোটি রুপি। এছাড়াও কেনা হবে ১৫টি হালকা কমব্যাট হেলিকপ্টার। সেনাবাহিনীর বহরে যোগ হবে ‘পিনাকা মালঈরোল’ নামক অত্যাধুনিক রকেট লঞ্চার।

এর আগে গত ১ তারিখ রাশিয়া থেকে ৪৬৪টি টি-৯০ আধুনিক ট্যাংক কেনার প্রস্তাব দিয়েছিল প্রতিরক্ষা বাহিনী। জানা গেছে, এই আধুনিক ট্যাংকগুলো পাকিস্তান সীমান্তে মোতায়েন করা হবে। মূলত রাতে যুদ্ধ করতে ব্যবহার হবে এইসব ট্যাংক। ট্যাংকগুলোতে থাকবে থার্মাল ইমেজিং-এর ব্যবস্থা। ফলে রাতেও এই প্রযুক্তি ব্যবহার করে ট্যাংকগুলো এগিয়ে যাবে শত্রুপক্ষের ঘাঁটির উদ্দেশ্যে। জম্মু থেকে গুজরাট পর্যন্ত সীমান্ত এলাকায় মোতায়েন থাকবে ট্যাংকগুলো।

Advertisements

Add Comment

Click here to post a comment