জাতীয়

বিশ্বে মোবাইল কলরেটে বাংলাদেশ দ্বিতীয় সর্বনিম্ন

ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেছেন, মোবাইলে ফোনের কলরেটের সর্বনিম্ন অবস্থানের দিক থেকে বাংলাদেশের অবস্থান দ্বিতীয়। বর্তমানে সর্বনিম্ন ২৫ পয়সা থেকে সর্বোচ্চ দুই টাকা কলরেট নির্ধারিত রয়েছে। প্রয়োজনে মোবাইল ফোনের কলরেট কমানো যেতে পারে।

মঙ্গলবার জাতীয় সংসদের অধিবেশনে সরকারি দলের সদস্য দিলারা বেগমের লিখিত প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলে প্রতিমন্ত্রী।

তারানা হালিম বলেন, প্রতিযোগিতামূলক মার্কেটে মোবাইল কম্পানিগুলো নির্ধারিত কলরেটের মধ্যেই তাদের ব্যবসা পরিচালনা করে। পার্শ্ববর্তী দেশসমূহের তুলনায় এটি যথেষ্ট কম।  বর্তমানে দেশে মোবাইল ফোনের গ্রাহক সংখ্যা ১৩ কোটি ৩১ লাখ ১৪ হাজার ২০৬ এবং ইন্টারনেট গ্রাহক সংখ্যা ৭ কোটি ৭৭ হাজার ৯৬৯।

সর্বোচ্চ রাজস্ব দিয়েছে গ্রামীণফোন সরকারি দলের সদস্য সুকুমার রঞ্জন ঘোষের প্রশ্নের জবাবে তারানা হালিম জানান, চলতি অর্থবছরের ১ জুলাই থেকে ১০ জুন পর্যন্ত সময়ে চলতি অর্থবছরে মোবাইল ফোন কোম্পানিগুলো মোট ৮৫৫ কোটি ১ লাখ টাকা রাজস্ব আদায় হয়েছে। এর মধ্যে গ্রামীণফোন সর্বোচ্চ ৪৩০ কোটি ৯৯ লাখ টাকা রাজস্ব দিয়েছে। গত অর্থবছরে (২০১৫-২০১৬) প্রতিষ্ঠানটি রাজস্ব দিয়েছিল ৫২৮ কোটি ৮৪ লাখ টাকা। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রবি আজিয়াটা লিমিটেড ২২১ কোটি ৭০ লাখ টাকা, এরপর বাংলালিংক ডিজিটাল কমিউনিকেশন্স লিমিটেড ১৬১ কোটি ৩৬ লাখ টাকা, এয়ারটেল বাংলাদেশ লিমিটেড ১৪ কোটি ৮৬ লাখ টাকা, প্যাসিফিক বাংলাদেশ টেলিকম লিমিটেড ১১ কোটি চার লাখ টাকা এবং টেলিটক বাংলাদেশ লিমিটেড ১৫ কোটি ৬ লাখ টাকা রাজস্ব দিয়েছে।