অপরাধ/দুর্নীতি

বন্ধুর ১০ বছরের মেয়েকে ধর্ষণ

বন্ধুর মেয়েকে কাজ দেয়ার কথা বলে ঢাকায় এনে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত খোকনকে (৪০) বৃহস্পতিবার গ্রেফতার করেছে কদমতলী থানা পুলিশ।

এদিকে ধর্ষণের শিকার ১০ বছরের ওই শিশুকে বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করা হয়েছে।

কদমতলী থানার এসআই প্রদীপ কুমার কুন্ডু জানান, ফরিদপুরের সদরপুরের ১০ বছর বয়সী এক শিশু কাজ করত গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় এক ব্যক্তির বাসায়। ওই শিশুর বাবা-মা কেউ নেই।

শিশুকে তার গৃহকর্ত্রী নির্যাতন করত। এমতাবস্থায় শিশুটি কিছু দিন আগে তার বাবার বন্ধু খোকনের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করে। তার কাছে ঢাকায় একটি কাজ চায়।

তিন সন্তানের জনক খোকন শিশুটিকে ঢাকায় এলে কাজ দেয়ার আশ্বাস দেয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে ২৯ জুন গোপালগঞ্জ থেকে শিশুটি ঢাকায় আসে। গাবতলী থেকে ওই শিশুকে নিয়ে আফতাবনগর এলাকায় এক বোনের বাসায় রাখে খোকন।

সেখান থেকে ৪ জুলাই তাকে কদমতলী থানার পোস্তগোলা রাজাবাড়ি এলাকায় আরেক বোনের বাসায় নিয়ে আসে।

সেখানে বুধবার দিবাগত রাত ২টার দিকে ঘুমন্ত অবস্থায় শিশুটিকে ধর্ষণ করে খোকন। শিশু চিৎকার দিলে বিষয়টি ওই পরিবার ও আশপাশের লোকজন জেনে যায়।

খবর পেয়ে পুলিশ বৃহস্পতিবার ওই বাসা থেকে শিশুটি উদ্ধার এবং খোকনকে গ্রেফতার করে। এ ঘটনায় কদমতলী থানায় মামলা করা হয়েছে।