খেলা-ধুলা

ফের উপেক্ষিত শাহরিয়ার নাফিস; অত:পর যা বললেন

অনেক দিন ধরে জাতীয় দলের বাইরে শাহরিয়ার নাফিসের। আফগানিস্তান ও ইংল্যান্ড সিরিজে প্রাথমিক স্কোয়াডে জায়গা পাওয়াটাই হয়ে আছে তার ভালো লাগার মতো একটি বিষয়। কিন্তু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) চতুর্থ আসর দিয়ে স্পটলাইট নিজের দিকে ঘুরিয়ে নেন বাঁহাতি এই ওপেনার।

বরিশাল বুলসের হয়ে বিপিএলে প্রথম চার-পাঁচ ম্যাচ দিয়েই আলোচনায় চলে আসেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের এক সময়ের এই নিয়মত সদস্য। তখন নিউজিল্যান্ড সফরে অন্তত টেস্ট দলে তাকে বিবেচনা করা হতে পারে বলে আশা করা হয়। খোদ বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের ঘোষণাতেও ছিল এমন ইঙ্গিত। তবে সব জল্পনা মিথ্যা করে দিয়ে নিউজিল্যান্ড সফরে নেওয়া হয়নি নাফিসকে।

আলোচনায় এসেও শেষপর্যন্ত দলে ফেরা হলো না নাফিসের। এতে অবশ্য আক্ষেপ নেই বাংলাদেশের হয়ে ২৪ টেস্ট, ৭৫ ওয়ানডে ও একটি টি-টোয়েন্টি খেলা নাফিসের। হতাশ না হয়ে আবারও অনুশীলন শুরু করে দিয়েছেন তিনি। বিপিএলে তার দলের খেলা শেষ হওয়ার পর সাতদিন বিশ্রাম নিয়ে সোমবার আবারও একাডেমি মাঠে অনেকক্ষণ ব্যাটিং অনুশীলন করতে দেখা গেছে তাকে।

বিপিএল চলাকালে তাকে নিয়ে যে আলোচনা হয়েছে এতেই খুশি বাঁহাতি এই টপ অর্ডার। তিনি বলেন, ‘বিপিএল শুরুর আগেই ২২ সদস্যের জাতীয় দল ঘোষণা করা হয়েছিল। এরপর বিপিএলে যেরকম পারফরম্যান্স হয়েছে, তাতে আমাকে নিয়ে যে আলোচনা হয়েছে, এতেই আমি খুশি। কারণ একটা স্কোয়াড ঘোষণা করার পর বোর্ড সভাপতি বললেন যোগ করা যায় কি না চিন্তা করছেন। আমার জন্য এটাই যথেষ্ট অনুপ্রেরণার। এতে বোঝা যায় হয়তো আমি খুব বেশি দূরে নেই।’

বিপিএল শেষ হতেই অনুশীলনে ফেরার বিষয়ে নাফিস বলেন, ‘আমরা যেহেতু দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠতে পারিনি তাই আমাদের খেলা তিন তারিখেই শেষ হয়ে গেছে। তিন তারিখ থেকে টানা এক সপ্তাহ বিশ্রাম নিয়েছি। খুব সম্ভবত ২০ তারিখ থেকে আমাদের জাতীয় লিগ শুরু হবে। এতদিন টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের মধ্যে ছিলাম এখন হুট করে চারদিনের ফরম্যাটে যেতে হচ্ছে। মানিয়ে নিতে যেন কোনো সমস্যা না হয়, এই কারণে অনুশীলন শুরু করা।’

সামনের বছর বাংলাদেশের ভারত ও শ্রীলঙ্কা সফর আছে। এসব মাথায় থাকবে কি না? এ প্রশ্নের জবাবে নাফিস বলেন, ‘না, জাতীয় দলের খেলা বা কোন কন্ডিশনে খেলা এসব আমার মাথায় নেই। এখন আমার বিকেএসপিতে প্রথম ম্যাচ, ওটাই আমার মাথায় আছে।

যে জিনিসগুলো আমি নিয়ন্ত্রণ করতে পারব না, সেসব নিয়ে আমি ভাবতে চাই না। অবশ্যই স্বপ্ন দেখি জাতীয় দলে ফিরব। ভবিষ্যতে যে সিরিজগুলো আছে তখন যদি দলে জায়গা খালি হয় বা আমার প্রয়োজনবোধ করেন নির্বাচকরা, আমার নামটা যেন সবার আগে আসে তেমন অবস্থা তৈরি করার চেষ্টা থাকবে।’

বিপিএলে শুরুটা দারুণ হলেও শেষের দিকে ভালো ব্যাটিং করতে পারেননি নাফিস। এর কারণ হিসেবে ব্যাটিং অর্ডার পরিবর্তন বলে উল্লেখ করেন তিনি। ১২ ম্যাচে ২৯২ রান করা নাফিস বলেন, ‘প্রথম পাঁচ-ছয়টা ম্যাচ আমি টপ অর্ডারে ব্যাটিং করেছি।

কিন্তু শেষের দিকে আমি ছয়-সাতে ব্যাটিং করেছি। কিছু কিছু ম্যাচে দেখা গেছে এক ওভার ব্যাটিং পেয়েছি। কিছু ম্যাচে দুই-তিন ওভার ব্যাটিং পেয়েছি। তবে বিপিএলের পারফরম্যান্স নিয়ে আমি খুশি। এই ধারাবাহিকতা প্রতিটা সিরিজে ধরে রাখার চেষ্টা করব।’

ভিডিও নিউজ : ক্রিকেট নিয়ে দম ফাটানো হাসির বিজ্ঞাপনের সংকলন (ভিডিও)

Add Comment

Click here to post a comment