Advertisements
বিনোদন

ফটোশুটের কথা বলে মডেলকে

ফ্রান্সের প্যারিস থেকে ইতালি নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল ব্রিটিশ মডেল চোলে আইলিংগকে। ফটোশুটের জন্য একটি দলের সঙ্গে চুক্তি করে যাচ্ছিলেন তিনি। তাঁকে যে অপহরণ করে যৌনপল্লিতে বিক্রি করার পরিকল্পনা হয়েছে তা ঘুনাক্ষরেও টের পাননি এই মডেল। কোনওরকমে দুষ্কৃতকারীদের হাত থেকে রক্ষা পান তিনি। নিজেই জানিয়েছেন সেই ভয়াবহ অভিজ্ঞতার কথা।

২০ বছর বয়সী চোলে জানিয়েছেন, তাঁকে ফটোশুটের জন্য গাড়িতে করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। কিন্তু, তিনি দেখেন, গন্তব্যের পরিবর্তে একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে তাঁকে। এবারে আসল চেহারা সামনে আসে অপহরণকারীদের। তারা তাঁকে ইঞ্জিকশন দিয়ে বেহুঁশ করে দেয়। তারপর নগ্ন ছবি তুলে সুটকেসে বন্ধ করে নিয়ে যায় তুরিনের এক প্রত্যন্ত এলাকায়। সেখানে নগ্ন ছবি তোলার জন্য তাঁকে জোর করা হয়।

তবে রাজি হননি। সেকারণে, অত্যাচারও করা হয়। এখানেই থেমে থাকেনি অপহরণকারীরা। তারা তাঁকে নিষিদ্ধ পল্লিতে বিক্রি করে দিতেও চেয়েছিল। তবে শেষ পর্যন্ত ছেড়ে দেওয়া হয়। অপহরণকারীরা জানতে পারে, চোলে এক সন্তানের মা। তখন তাঁকে মুক্তি দেওয়া হয়।

অপহরণকারীদের হাত থেকে মুক্তি পাওয়ার পর নিরাপদে বাড়ি ফিরেছেন চোলে। তাঁর কথায়, একটা একটা দিন, ঘণ্টা, মুহূর্ত তিনি আতঙ্কে কাটিয়েছেন। এখনও ভয় পুরোপুরি কাটেনি। প্রতি মুহূর্তে ভয়াবহ অভিজ্ঞতার কথা মাথায় আসছে। পুলিশকে ধন্যবাদ।

তদন্তে নেমে অপরহণকারী সন্দেহে বছর তিরিশের এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে ইতালি পুলিশ। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তদন্তকারীদের তরফে জানানো হয়েছে, ওই নারী জানিয়েছেন, তাঁকে যৌন হয়রানি ধর্ষণ করা হয়নি।

Advertisements





সর্বশেষ খবর