বিনোদন বিভাগীয় সংবাদ

প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা চান রাতিনের পরিবার

কিছুদিন আগে চিকুনগুনিয়া রোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন চলচ্চিত্রের কিংবদন্তী অভিনেত রাতিন। কিন্তু চিকুনগুনিয়া থেকেই কিডনীতে এবং লিভারে সমস্যা দেখা দেয়। শারীরিকভাবে খুবই দুর্বল হয়ে পড়েন তিনি। তবে গত ৬ জুলাই শারীরিক এমতাবস্থায় ব্রেইনস্ট্রোক করেন তিনি। এর আগে কিছুটা চেতন থাকলেও ব্রেইন স্ট্রোক হবার কারণে খাওয়া দাওয়ায় যেমন সমস্যা হচ্ছে, ঠিক তেমনি রাতিন কোনরকম কথাও বলতে পারছেন না বলে জানালেন তারই ছোট ভাই অঞ্জন রহমান।

তিনি জানান, এভাবে চলতে থাকলে ভাইয়াকে বাঁচানোই কঠিন হয়ে যাবে। কারণ ডাক্তার জানিয়েছেন ব্রেইনে যদি আবার অ্যাটাক হয় তাহলে বড় কোন দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে। রাতিনের এক ছেলে ওমর ফারুক। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাস্টার্স শেষ করে একটি প্রাইভেট ফার্মে চাকরি করছেন। কিন্তু রাতিনের উন্নত চিকিৎসার জন্য এই মুহুর্তে অনেক অর্থের প্রয়োজন। যা পরিবারের পক্ষে যোগান দেয়া কোনভাবেই সম্ভব না। তাই তার উন্নত চিকিৎসার জন্য তার পরিবারের পক্ষ থেকে ছোট ভাই অঞ্জন রহমান প্রধানমন্ত্রীর কাছে আর্থিক সহযোগিতা কামনা করেছেন।

রাতিনের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করলেও রাতিন কোনরকম কথা বলতে পারেননি। অঞ্জন রহমান বলেন, ‘ভাইয়ার শরীর এতোটাই দুর্বল যে তিনি কথাও বলতে পারছেন না। তার শারীরিক অবস্থার এতোটাই অবনতি ঘটেছে যে দ্রুত তার উন্নত চিকিৎসা প্রয়োজন। এ জন্য আমরা প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করছি আর্থিক সহযোগিতার জন্য।’

রাজধানীর সদরঘাটের ন্যাশনাল হসপিটালে অক্সিজেন সাপোর্টে মেডিসিন বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক একে এম আমিনুল হকের তত্ত্বাবধানে রাতিনের চিকিৎসা চলছে।

এদিকে সম্প্রতি শিল্পী সমিতির পক্ষ থেকে সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান রাতিনকে দেখতে গিয়ে তিনি তার ব্যক্তিগত খাত থেকে দশ হাজার টাকা সহযোগিতা করেছেন। রাতিন আপাতত আর কোন সহযোগিতাই পাননি। যে কারণে তার পরিবারের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীর কাছে সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে।

অভিনেতা রাতিন অসংখ্য চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। ১৯৭০ সালে মোস্তফা মেহমুদ পরিচালিত ‘নতুন প্রভাত’ ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিনয় শুরু করেন। তার অভিনীত ছবিগুলোর মধ্যে রয়েছে ‘দেবদাস’, ‘হারানো সুর’, ‘শুকতারা’, ‘জবাব চাই’, ‘স্নেহের প্রতিদান’, ‘চোরের বউ’, ‘মহান বন্ধু’, ‘লালু সর্দার’, ‘স্বার্থপর’ প্রভৃতি। তার অভিনীত মঞ্চ নাটকের সংখ্যা প্রায় শতাধিক। উল্লেখ্য, গতকালই রাতিনকে ন্যাশনাল হসপিটাল থেকে পিজি হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।