খেলা-ধুলা

প্রধানমন্ত্রীর প্রতি মিরাজের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ; যা বললেন

1aবাংলাদেশের ‘বিস্ময় বালক’ ক্রিকেটার মেহেদি হাসান মিরাজ এবং তার পিতা জালাল উদ্দিন তাদের পরিবারের জন্য একটি বাড়ি বানিয়ে দিতে উদ্যোগ নেয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

মিরাজ জানান, প্রধানমন্ত্রী আমার পরিবারের জন্য একটি বাড়ি বানিয়ে দেয়ার উদ্যোগ নিয়ে আমাদের প্রতি যে মহানুভবতার পরিচয় দিয়েছেন, এ জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং দেশবাসীর প্রতি আমি কৃতজ্ঞ।

পরিবারের জন্য একটি বাড়ি করে দিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ দেয়ার খবর শুনে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় মিরাজ এ কথা বলেন। এ সময় তিনি আনন্দে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন।

মিরাজের দরিদ্র পিতা ট্যাক্সি চালক জালাল উদ্দিনও তাদের জন্য বাড়ি বানিয়ে দেয়ার উদ্যোগ গ্রহণের খবরে একই অনুভূতি প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। তিনি আবেগ আপ্লুত কন্ঠে বলেন, মিরাজ এখন শুধু আমাদের ছেলে নয়, তাকে দেখা শুনার দায়িত্ব এখন জাতির।

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. আবুল কালাম আজাদ প্রধানমন্ত্রীর এই নির্দেশনা খুলনা জেলা প্রশাসক নাজমুল আহসানকে অবহিত করার পর মিরাজের সাথে খুলনার নেজারত ডেপুটি কালেক্টর (এনডিসি) আতিকুল ইসলাম কথা বলেন। এ সময় তিনি মিরাজের পরিবারের জন্য বাড়ি বানানোর স্থান সম্পর্কে তার পছন্দ জানতে চান। এ সময় মিরাজ খুলনা মহানগরীর খালিশপুর এলাকার কথা উল্লেখ করে বলেন, এ এলাকাটি তার পরিবারের জন্য সুবিধাজনক হবে, কেননা এ এলাকায় তারা বড় হয়েছেন।

তিনি বলেন, শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামের পাশে খুলনা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের কয়েকটি খালি বাণিজ্যিক-কাম-আবাসিক প্লট রয়েছে। তিনি বলেন, ‘কর্তৃপক্ষ যদি এটি (প্লট) বরাদ্দ দেয় তাহলে এ ধরনের একটি প্লটই আমাদের জন্য ভালো হবে’।

পরে এনডিসি মিরাজকে জানান, তাদের পছন্দের বিষয়টি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হবে। এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষগুলোকে মিরাজের পরিবারের জন্য আবাসিক বাড়ি নির্মাণের নির্দেশনা দেন।

প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিব আশরাফুল আলম খোকন বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতোমধ্যেই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষগুলোকে বাড়ি নির্মাণের নির্দেশনা দিয়েছেন এবং প্রধানমন্ত্রীর এই নির্দেশনা তাঁর মুখ্য সচিব আবুল কালাম আজাদ খুলনার জেলা প্রশাসককে জানিয়ে দিয়েছেন।’

আশরাফুল আলম খোকন বলেন, বাড়ি নির্মাণের জন্য উপযুক্ত স্থান খুঁজে বের করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবে স্থানীয় প্রশাসন।

বাংলাদেশের সাম্প্রতিক ‘ক্রিকেট সেনসেশন’ মিরাজ ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্ট বিজয়ে ১২ উইকেট শিকারের মাধ্যমে দেশবাসীর প্রশংসা লাভ করেন।

খুলনার দরিদ্র ট্যাক্সি চালকের ছেলে ১৯-বছর বয়সি স্পিনার মিরাজ ইংল্যান্ডের সাথে সদ্য সমাপ্ত দুই-ম্যাচের রকেট টেস্ট সিরিজে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন।

ভিডিওঃ শুটিং করতে গিয়ে একি অবস্থা, সবার সামনে কাপড় খুলে গেল রিতুপর্নার (ভিডিওসহ)

Add Comment

Click here to post a comment