জাতীয়

প্রথম শ্রেনীর চাকরিতে যোগ দিলেন এসি রবিউলের স্ত্রী

গুলশানের হলি আর্টিজান রেস্টুরেন্টে জঙ্গি হামলায় নিহত পুলিশ কর্মকর্তা রবিউল করিমের স্ত্রী উম্মে সালমা জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক কর্মকর্তা পদে যোগ দিয়েছেন। গত শুক্রবার তাকে দেওয়া নিয়োগপত্র অনুযায়ী আজ সকাল থেকে প্রশাসনিক ভবনের শিক্ষা শাখায় প্রথম দিনের অফিস শুরু করেন।

নিয়োগপত্রে বলা হয়েছিল, চাকরিতে যোগদানের তারিখ হতে তার নিয়োগ কার্যকর হবে। সে অনুযায়ী অনুযায়ী আজ (৯ জুলাই) থেকে তার নিয়োগ কার্যকর হলো।

প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, উম্মে সালমা সকাল সাড়ে আটটার দিকে শিক্ষা শাখায় প্রশাসনিক কর্মকর্তা পদে যোগদানের সম্মতিপত্র, একাডেমিক সার্টিফিকেটসহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে প্রশাসনিক ভবনে আসেন।

পরে রেজিস্ট্রার আবু বকর সিদ্দিক কাগজপত্রগুলো গ্রহণ করে তাকে শিক্ষা শাখায় পাঠান। এসময় তাকে প্রয়োজনীয় প্রশাসনিক দিকে-নির্দেশনা দেওয়া হয়।

সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে শিক্ষা শাখায় গিয়ে উম্মে সালমাকে সহকর্মীদের সাথে সময় কাটাতে দেখা যায়। নতুন চাকরি নিয়ে রবিউলের স্ত্রী বলেন, ‘প্রথমদিনে সবার সাথে পরিচিত হয়েছি। খুব ভালো লাগছে।’ বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের দেয়া সম্মান যেন যথাযথ ভাবে পালন করতে পারেন তার জন্য সকলের কাছে দোয়া প্রার্থনা করেন সালমা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ আলী (শিক্ষা) বলেন, ‘আমরা উম্মে সালমাকে স্বাগত জানিয়েছি। খুব দ্রুতই তাকে নিজস্ব ডেস্কে তার কাজ বুঝিয়ে দেওয়া হবে।’

প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার উম্মে সালমাকে দৈনিক ৫২৫ টাকার বেতনে তৃতীয় শ্রেণির উচ্চমান সহকারী পদে ৯০ দিনের জন্য মাস্টারোলে (কাজ করলে বেতনে) নিয়োগ দিয়েছিল বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। কিন্তু তিনি যোগ্যতা অনুযায়ী প্রথম শ্রেণির প্রশাসনিক কর্মকর্তা পদের জন্য আবেদন করেছিলেন। পরে সমালোচনার মুখে শুক্রবার দুপুরে তাৎক্ষণিক সিদ্ধান্তে তাকে শিক্ষা শাখার প্রশাসনিক কর্মকর্তা পদে অ্যাডহক (অস্থায়ী) ভিত্তিতে নিয়োগ দেন উপাচার্য ফারজানা ইসলাম।