আন্তর্জাতিক

পুরনো প্রেমিককে ফিরে পেতে এই কিশোরী যা করেছে, তা দৃষ্টান্ত হয়ে থাকার যোগ্য

image-52327-1481268872প্রেমের বয়স কয়েক মাস হতে না হতেই প্রেমিকের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন হয়ে যায় চিনা কিশোরী লি হি ডেনের। সম্পর্ক শেষ হতে না হতেই লি-এর সঙ্গে যোগাযোগ রাখা বন্ধ করে দেয় তার প্রেমিক। এরপর লি অনেক চেষ্টা করে মিটমাটের। কিন্তু ছেলেটি আর তার দিকে ফিরেও তাকায়নি। এরপর চিনের এই কিশোরী তার প্রেমিককে ফিরে পেতে যা করেছে, তা রীতিমতো দৃষ্টান্ত হয়ে থাকার যোগ্য।

লি’র বয়সি অন্য কোনও মেয়ের সঙ্গে এমনটা ঘটলে সে হয়তো কয়েকটা দিন মনমরা হয়ে থাকত। তার পর ধীরে ধীরে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসার চেষ্টা করত। কিন্তু লি অন্য ধাতুতে গড়া। ব্রেক আপের পরে সে মনে মনে সংকল্প নেয়, পুরনো প্রেমিককে আবার তার জীবনে ফিরে আসতে বাধ্য করবে।

দেখতে-শুনতে কোনওদিনই অসুন্দর ছিল না লি। স্মিত সারল্য ছিল তার চেহারায়। কিন্তু লি স্থির করে, নিজেকে আরও আকর্ষণীয় করে গড়ে তুলবে সে। তার জন্য যে কোনও মূল্য চুকাতে সে প্রস্তুত ছিল। এরপর সে দেশের নামজাদা প্লাস্টিক সার্জেনদের দ্বারস্থ হয়।

চিকিৎসকরা লি’র চাহিদা বুঝে তাকে সতর্ক করে দেন যে, সে যেরকম চেহারা চাইছে, তেম‌নভাবে তাকে গড়ে দিতে গেলে অজস্র প্লাস্টিক সার্জারি করতে হবে তার শরীরে। তাতে তার শরীরে যথেষ্ট কুপ্রভাব পড়তে পারে। কিন্তু লি জানায়, সে যে কোনও রকম ঝুঁকি নিতে প্রস্তুত।

এরপর লি’র নাক, মুখ, চোখ, চোয়াল, স্তন সহ শরীরের বিভিন্ন অংশে দফায় দফায় প্লাস্টিক সার্জারি করেন চিতিৎসকরা। প্রচন্ড শারীরিক যন্ত্রণা এবং জটিলতার মধ্যে কয়েক মাস কাটে লি’র। একটু একটু করে সম্পূর্ণ বদলে যায় লি’র শরীর। একেবারে অন্য মানুষে রূপান্তরিত হয়ে যায় সে।

বর্তমানে লি’কে দেখলে চলন্ত পুতুল বলে মনে হয়। হাত-পা-চোখ-মুখ— সবই যেন পুতুলের শরীরের অংশ।

এতকিছুর পরও সাবেক প্রেমিক এখনও লি’র সঙ্গে নতুন করে যোগাযোগ করেনি। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ায় অসম্ভব জনপ্রিয়তা পেয়েছে লি। চাইনিজ সোশ্যাল মিডিয়া উইবো-তে নিজের নতুন চেহারার ছবি পোস্ট করার মাসখানেকের মধ্যে লি’র ফলোয়ারের সংখ্যা ৪ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো তারকা হয়ে গিয়েছে লি। কিন্তু তার মনে শান্তি নেই। যার জন্য এতকিছু, সেই পুরনো প্রেমিক আবার ফিরে আসুক তার জীবনে, এটাই একমাত্র প্রার্থনা লি’র।

আরও পড়ুনঃ  মা-বাবার চোখের সামনে ঈগল পাখি কি ভাবে বাচ্চাটাকে নিয়ে গেল !!! দেখুন সেই মর্মান্তিক (ভিডিও)

Add Comment

Click here to post a comment