খেলা-ধুলা

`পাকিস্তান ধর্মনিরপেক্ষ দেশ` টুইট করে বিতর্কের মুখে শোয়েব আখতার

‘পাকিস্তান ধর্মনিরপেক্ষ দেশ’—শোয়েব আখতারের কাছে তা-ই। কিন্তু বেশির ভাগ মানুষই তো পাকিস্তানকে ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্র হিসেবে মনে করে না। এমনকি পাকিস্তানিরাও না। এ-সংক্রান্ত একটি টুইট করে বেশ বিতর্কের মুখে পড়েছেন সাবেক তারকা ফাস্ট বোলার।

সুপ্রিম কোর্টের রায়ে নওয়াজ শরিফের পদত্যাগের পর শহীদ খাকন আব্বাসি ভারপ্রাপ্ত প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নিয়েছেন। তাঁর মন্ত্রিসভায় দর্শন লাল নামে সিন্ধু প্রদেশের একজন হিন্দু রাজনীতিবিদ

মন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন। এই ছবি টুইট করে শোয়েব তাতে লেখেন, এর থেকেই প্রমাণিত হয় যে পাকিস্তান একটি ধর্মনিরপেক্ষ দেশ।

তা-ও সই। কিন্তু শোয়েব টুইটারে দর্শন লালের নামে যে ছবিটা পোস্ট করেছেন, সেটাতেই বিশাল এক ভুল করে ফেলেন। পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট মামনুন হোসেনের সঙ্গে শোয়েব প্রধানমন্ত্রীর ছবি পোস্ট করেন। সেখানে শপথ নিচ্ছেন আরেকজন, অথচ শোয়েব লিখেছেন দর্শন লালের কথা। শোয়েব নিজে চেনেন তো কে কোনটা? সঙ্গে সঙ্গেই এ ধরনের ট্রলের শিকার তিনি। অনলাইনে অপদস্থ হওয়ার ব্যাপারটি যেন নিজের হাতেই আমন্ত্রণ জানিয়েছেন রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস।

হ্যামলেট নামের একজন শোয়েবকে জবাব দিয়েছেন এভাবে, ‘এভাবেই আপনি ধর্মনিরপেক্ষতার সংজ্ঞা দিচ্ছেন? দয়া করে আপনি ক্রিকেটেই মনোযোগ দিন।’

ভুল ছবির ব্যাপারটি নিয়ে কৌতুককর মন্তব্য করেছেন অনেকেই। জাহিদ আফ্রিদি লিখেছেন, ‘মামনুন হোসেন (পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট) কবে হিন্দু হয়ে গেলেন। শহীদ খাকন আব্বাসিই বা হিন্দু হলেন কবে!’