বিনোদন

পরিচালকের খাবার চুরি ভোজন সাড়লেন দীপিকা

বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন। বর্তমানে পদ্মাবতী সিনেমার শুটিং নিয়ে ব্যস্ত তিনি। পুরো দমে চলছে সিনেমার শুটিং। কিন্তু দীপিকা কিনা ব্যস্ত নির্মাতা সঞ্জয় লীলা বানসালির নাস্তা চুরিতে!

খাবার চুরির বিষয়টি নিজেই জানিয়েছেন দীপিকা। মজার ছলেই এমনটা করেছেন এ অভিনেত্রী। গতকাল (৬ জুলাই) ইনস্টাগ্রামে একটি ছবি পোস্ট করেন তিনি। খাবারের ছবির ক্যাপশনে লেখেন, ‘সঞ্জয় লীলা বানসালি যখন শুটিং নিয়ে ব্যস্ত তখন তার নাস্তা চুরি করছি।’

পদ্মাবতী সিনেমায় রানি পদ্মাবতী চরিত্রে অভিনয় করছেন দীপিকা পাড়ুকোন। এ ছাড়া সিনেমাটিতে আরো অভিনয় করছেন শহিদ কাপুর ও রণবীর সিং। রানি পদ্মাবতীর স্বামী রাওয়াল রতন সিংয়ের ভূমিকায় দেখা যাবে শহিদ কাপুরকে। অন্যদিকে আলাউদ্দিন খিলজির চরিত্রে অভিনয় করছেন রণবীর সিং।

বর্তমানে পদ্মাবতী সিনেমার শুটিং ঠিকঠাক চললেও মাঝে বেশ জটিলতায় পড়তে হয়েছে নির্মাতাদের। প্রথমে গত ডিসেম্বরে সিনেমার শুটিং সেটে একজনের মৃত্যু নিয়ে তৈরি হয় জটিলতা। এরপর গত জানুয়ারিতেপদ্মাবতী সিনেমার শুটিং সেটে ভাঙচুর করে রাজপুত করনি সেনা। তাদের অভিযোগ ছিল, সিনেমায় পদ্মাবতীর ভাবমূর্তি নষ্ট করছেন সঞ্জয়। কারণ সিনেমায় পদ্মাবতীর সঙ্গে তৎকালীন শাসক আলাউদ্দিন খিলজির প্রেমের সম্পর্ক দেখানো হয়েছে। কিন্তু বাস্তবে পদ্মাবতী-খিলজির মধ্যে কোনো প্রেমের সম্পর্ক ছিল না। ওই সময় ভেঙে ফেলা হয় শুটিংয়ের বেশ কিছু মূল্যবান সরঞ্জাম। এমনকি সিনেমার কলাকুশলীদের সঙ্গে ধাক্কাধাক্কির মাঝেই বানসালিকে থাপ্পড় মারে এক ব্যক্তি। তারপর বন্ধ হয়ে যায় শুটিং।

পরবর্তীতে গত মার্চেপদ্মাবতী’র শুটিং সেটে আগুন দেয় দুষ্কৃতিকারীরা। মহারাষ্ট্রের কোলাপুরে ঘটনাটি ঘটে। ৪০-৫০ জনের একটি দল পেট্রোল বোমা, পাথর এবং লাঠি নিয়ে হামলা চালায়। তখন সেটের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সদস্যদের সঙ্গে মারামারি হয়। তারা গাড়ি ভাঙচুর করে এবং সেটে আগুন দেয়। ওই সময় শুটিং সেটে কোনো কলাকুশলী ছিল না কিন্তু অনেক প্রাণী ছিল। এর মধ্যে একটি ঘোড়া গুরুতরভাবে আহত হয়।

আগামী নভেম্বরে সিনেমাটি মুক্তির পরিকল্পনা করছেন নির্মাতারা। সে লক্ষ্য মাথায় রেখেই শুটিং চলছে বলে জানা যায়।