জাতীয় বিভাগীয় সংবাদ

নোয়াখালীতে গণপিটুনি, নিহত ৪

নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলায় গরু চোর সন্দেহে ৪ জনকে গণপিটুনিতে হত্যা করেছে স্থানীয় এলাকাবাসী। এ ঘটনায় আরো ২জনকে গুরুতর আহত অবস্থায় পুলিশ আটক করেছে। বুধবার দিবাগত গভীর রাতে উপজেলার চরজুবলি ইউনিয়নের কচ্চবিয়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

নিহতদের মধ্যে একজনের নাম জাকির হোসেন (৩২)। সে চর আমান উল্লাহ ইউনিয়নের কাটাবুনিয়া গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে। এ সময় আহত অবস্থায় আরো দুইজনকে আটক করে পুলিশ। তারা হলেন, চরজুবলি ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের বেলালের ছেলে হেলাল (২২) ও একই এলাকার আবদুল হামিদের ছেলে জাহাঙ্গীর (৪০)। বাকীদের নাম ও পরিচয় এখনো জানা যায়নি। উত্তেজিত জনতা এ সময় চুরির কাজে ব্যবহৃত একটি পিকআপে অগ্নিসংযোগ করে জ্বালিয়ে দেয়।

চরজব্বর থানার ওসি নিজাম উদ্দিন জানান, গত কয়েকদিন থেকে সুবর্ণচর উপজেলার চর জুবলিতে গরু চুরির ঘটনা ঘটে আসছিল। চোরদেরকে ধরার জন্য এলাকাবাসী রাত জেগে পাহারা দিয়ে আসছে। বুধবার রাত আড়াইটার দিকে পিক-আপ নিয়ে ৬ জনের একদল চোর ওই ইউনিয়নের উত্তর কচ্চবিয়া গ্রামে যায়। এলাকাবাসী বিষয়টি টের পেয়ে তাদেরকে ধাওয়া দিয়ে ধরে গণপিটুনি দেয়। এ সময় ঘটনাস্থলে চারজন মারা যায়।
খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নিহতদের মরদেহ এবং আহত অবস্থায় অপর দুজনকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। পরে আহতদেরকে চিকিৎসার জন্যে নোয়াখালী জেনালে হাসপাতালে পাঠানো হয়। মরদেহগুলো ময়না তদন্তের জন্যে একই হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।
ঘটনাস্থল থেকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জহিরুল ইসলাম জানান, গণপিটুনিতে হত্যা ও চুরির ঘটনায় পুলিশের পক্ষ থেকে থানায় পৃথক দুটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।



সর্বশেষ খবর