রাজনীতি

নূর হোসেনের আত্মত্যাগ বৃথা যায়নি : রাষ্ট্রপতি

195351abdulhamid20160101105152 রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, শহিদ নূর হোসেনের আত্মত্যাগ বৃথা যায়নি। তাঁর আত্মাহুতির ধারাবাহিকতায় ১৯৯০ সালে গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা পেয়েছিল।
তিনি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করেন, বাংলাদেশের মাটিতে নূর হোসেনের মতো সাহসী মানুষ যতদিন বেঁচে থাকবে ততদিন এ দেশের গণতন্ত্র বিপন্ন হবে না।
রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ নূর হোসেনের মৃত্যু দিবস উপলক্ষে আজ দেয়া এক বাণীতে এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
বাণীতে তিনি বলেন, ১০ নভেম্বর বাংলাদেশে গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠার সংগ্রামে এক গুরুত্বপূর্ণ দিন। এ দিনে রাজপথ রঞ্জিত হয় শহিদ নূর হোসেনের রক্তে।
আবদুল হামিদ বলেন, এ দেশের মানুষ জন্মগতভাবে গণতন্ত্রপ্রিয়। কিন্তু আমাদের গণতান্ত্রিক অগ্রযাত্রার পথ কখনো মসৃণ ছিল না। স্বাধীনতা বিরোধী ঘাতকচক্রের হাতে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তাঁর পরিবারের আপনজনদের নৃশংসভাবে হত্যার মধ্যদিয়ে এ দেশে গণতন্ত্রের অগ্রযাত্রা রুদ্ধ হয়। উত্থান ঘটে স্বৈরশাসনের।
তিনি বলেন, গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের জন্য বাংলার জনগণ আন্দোলন করে। এরই ধারাবাহিকতায় ‘স্বৈরাচার নিপাত যাক, গণতন্ত্র মুক্তিপাক’ এই শ্লোগান শরীরে ধারণ করে সাহসী নূর হোসেন ১৯৮৭ সালের ১০ নভেম্বর স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করেছিলেন। মিছিলের পুরোভাগে থাকা এই অকুতোভয় যোদ্ধা অসাম্প্রদায়িক ও গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ গড়তে বুকের তাজা রক্ত দিয়ে গেছেন।
রাষ্ট্রপতি গণতন্ত্রের জন্য আত্মোৎসর্গকারী শহিদ নূর হোসেনকে শ্রদ্ধার সাথেস্মরণ করেন এবং তাঁর বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন।
Advertisements

Add Comment

Click here to post a comment