বিনোদন

নিজের গান নিয়ে বললেন সাবিনা ইয়াসমিন

1আধুনিক বা প্লেব্যাক সঙ্গীতের জনপ্রিয় শিল্পী সাবিনা ইয়াসমীন। পাশাপাশিবেশকিছু জনপ্রিয় দেশের গানেও কণ্ঠ দিয়েছেন প্রখ্যাত এ শিল্পী।

এ প্রসঙ্গ তিনি বলেন, প্রথমে বলব, আমার সৌভাগ্য আমি কয়েকটি শ্রুতিমধুর দেশের গান গাওয়ার সুযোগ পেয়েছি। আর দ্বিতীয় যে কথাটি বলতে চাই, সেটি আমার কথা নয়। অনেকেই আমাকে বলেন, আপনি এত দেশের গান গেয়েছেন যে, মুক্তিযোদ্ধার তালিকায় তো আপনার নাম থাকা উচিত।

এ পর্যন্ত কতগুলো দেশের গান গেয়েছেন? এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ঠিক করে বলা মুশকিল। তবে ৩৫-৪০টা তো হবেই। তবে এর মধ্যে ‘জন্ম আমার ধন্য হলো মা গো’ গানটি আমার সবচেয়ে বেশি ভালো লাগে।

এর পেছনের ইতিহাস সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটি খুবই হৃদয়ছোঁয়া একটি গান। স্বাধীনতার আগে, সম্ভবত ১৯৬৯-৭০ সালে এই গানটি করাচির একটি স্টুডিওতে রেকর্ড করা হয়েছিল। গানটি লিখেছেন নঈম গওহর। সুর করেছেন আজাদ রহমান। গানটি আমি গাই নজরুলসংগীত-শিল্পী ফিরোজা বেগমের সঙ্গে। আরো বেশ কজন সহশিল্পী এ গানের কোরাসে অংশ নিয়েছিলেন।

এ মুহূর্তে জিনাত রেহানা, নাসির হায়দার, আহমেদুল্লাহ সিদ্দিকী, আসাদুল হক, লায়লা মোজাম্মেলের নাম মনে পড়ছে। আসলে ওই সময় এইচএমভি থেকে দুটো গানের একটি রেকর্ড বের হয়। যেখানে প্রথম গানটি ছিল সমবেত কণ্ঠে গাওয়া ‘পুবের ওই আকাশে সূর্য উঠেছে আলোকে আলোকময়’। তার সঙ্গে ‘জন্ম আমার ধন্য হলো মা গো’ গানটি সংযোজিত হয়। অনেক পরে একটি ছবিতে গানটি আমি একক কণ্ঠে গাই। ছবির নাম ‘দেশপ্রেমিক’। এর পরই গানটি শ্রোতাদের মুখে মুখে শোনা যায়।

সাবিনা ইয়াসমীন সম্প্রতি নাদের চৌধুরীর ‘মেয়েটি এখন কোথায় যাবে’ শীর্ষক ছবির একটি গানে কণ্ঠ দিয়েছেন। এর কথা লিখেছেন কবির বকুল। সুর ও সংগীত পরিচালনা করেছেন ইমন সাহা।

সাবিনার সঙ্গে দ্বৈতকণ্ঠ দিয়েছেন তরুণ কণ্ঠশিল্পী শাহিদ। কিছুদিন আগে সাবিনা ইয়াসমীন ‘বাসর হবে মাটির ঘরে’ শীর্ষক সিনেমার একটি গানেও কণ্ঠ দিয়েছেন। ‘আমি তোমার কাছে এলাম’ শীর্ষক গানটির কথা লিখেছেন কবির বকুল। সুর-সংগীত করেছেন শওকত আলী ইমন।

এতে সাবিনার সঙ্গে দ্বৈত কণ্ঠ দিয়েছেন মোহাম্মদ রফিকুল আলম। এছাড়া আগামীতে আরো বেশ কিছু ছবিতে গান করার ব্যাপারে কথা হয়েছে বলে জানান সাবিনা। গানের পাশাপাশি সাবিনা ইয়াসমীন বর্তমানে দুস্থ শিল্পীদের সেবায়ও নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন।

চলতি বছরের মাঝামাঝি সময় রেশ গ্রুপ নামক একটি সংগঠনের সভাপতির দায়িত্ব নেন তিনি। এই সংগঠনটি গীতিকবি, সুরকার, সংগীত পরিচালক, যন্ত্রসংগীতশিল্পী এবং কণ্ঠশিল্পীদের সহায়তার লক্ষ্যে দাঁড় করানো হয়েছে। সংগীত-সংশ্লিষ্ট যে কেউ অসুস্থ হয়ে পড়লে রেশ গ্রুপ তার পাশে এসে দাঁড়ায়।

ভিডিওঃ জানেন, পর্নস্টারদের প্রথম দিনের অভিজ্ঞতা কেমন? (ভিডিও)

Advertisements

Add Comment

Click here to post a comment