বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

নতুন চমক দিল অ্যাপল

অবশেষে দীর্ঘ এক বছরের অপেক্ষার অবসান। যেমনটা ভাবা হয়েছিল ঠিক তেমনি নতুন চমক দিল অ্যাপল। নিজেদের এক দশক পূর্তির অনুষ্ঠানে একটি বা দুটি নয়, একসঙ্গে তিনটি সিরিজ একসঙ্গে লঞ্চ করা হল। iPhone 8, iPhone 8 Plus এবং iPhone X আত্মপ্রকাশ করেছে।

এর মধ্যে একটি অ্যানিভার্সারি স্পেশাল ফোন থাকবে যার মূল্য হবে সবথেকে বেশি। এই তিনটি ছাড়াও এই অনুষ্ঠানে iOS 11 এবং অ্যাপেল টিভিসহ Apple Watch লঞ্চ করে হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ছ’মাস ধরেই চর্চায় রয়েছে অ্যাপেলের নতুন আইফোন। বারবারই এর ফিচার্স লিক হয়ে যাওয়ার খবরও পাওয়া গেছিলো তবে এই নয়া ফোন যে ফের একবার গ্যাজেটপ্রেমীদের আকর্ষণ করবে এমনটাই প্রত্যাশা একাংশের।

অ্যাপল বলছে, বিশেষ এই আইফোন টেন-এ এমন কিছু ফিচার রয়েছে যা নতুন আইফোন ৮ এবং আইফোন ৮ প্লাসে নেই। এর নিজস্ব কিছু বৈশিষ্টের কারণে এটি অনন্য।

আইফোন ৮- এর স্টোরেজ হবে ৩২ জিবি, ২৫৬ জিবি ও ৫১২ জিবি। নতুন এই আইফোনগুলোতে অ্যাপল এই প্রথম ব্যবহার করেছে তাদের অত্যাধুনিক প্রসেসর এ১১ বায়োনিক চিপ। এই প্রসেসর ব্যবহারের ফলে আগের সব আইফোনের চেয়ে নতুন এই মডেলের আইফোনগুলো হবে সবচেয়ে দ্রুতগতির। আইফোন ৮ প্লাসে থাকছে ১২ মেগাপিক্সেল ডুয়াল সেন্সর ও ওআইএস সুবিধা। আইফোন ৮-এর ডিসপ্লে চার দশমিক সাত ইঞ্চি এবং আইফোন ৮ প্লাস-এর ডিসপ্লে সাড়ে পাঁচ ইঞ্চি।

আইফোন এক্স থেকে টাচ আইডি বাদ দেয়া হয়েছে। টাচ আইডি’র পরিবর্তে ফেইস আইডি যুক্ত করা হয়েছে। মুখ দিয়ে লক এবং আনলক করা যাবে।

এছাড়া আইফোন ৮ এবং আইফোন ৮ প্লাসে যুক্ত হয়েছে ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তি। আইফোন ৮ এর দাম ৬৯৯ মার্কিন ডলার ও আইফোন ৮ প্লাসের দাম ৭৯৯ মার্কিন ডলার।

৫.৮ ইঞ্চি ডিসপ্লের আইফোন এক্স পাওয়া যাবে দুটি ভার্সনে। প্রাথমিকভাবে যুক্তরাষ্ট্রে ৬৪ জিবি স্টোরেজ সমৃদ্ধ আইফোন এক্সের দাম ধরা হয়েছে ৯৯৯ মার্কিন ডলার। আর ২৫৬ স্টোরেজের আইফোন এক্সের জন্য খরচ করতে হবে ১৪৫৯ মার্কিন ডলার।

নতুন আইফোন ৮ এবং আইফোন ৮ প্লাস পাওয়া যাবে ২২ সেপ্টেম্বর থেকে। তবে আইফোন টেন পেতে অপেক্ষা করতে হবে নভেম্বর মাস পর্যন্ত।