জাতীয় রাজনীতি

নতুন কমিটিতেও চাঙ্গা হয়নি নগর বিএনপি, হতাশ কর্মীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা মহানগরে বিএনপির নতুন কমিটি দেয়ার পরও দল এখন চাঙ্গা হয়নি। দলীয় কার্যক্রম চাঙ্গা করার লক্ষ্যে ঢাকা মহানগরকে উত্তর ও দক্ষিণে ভাগ করা হলেও এর কোনো ইতিবাচক ফল পায়নি দলটি। নতুন কমিটি প্রায় ৬ মাস পার করলেও মাঠের কার্যক্রম নেই বললেই চলে। তবে এ ব্যর্থতার জন্য মহানগর বিএনপি দায়ী করছেন কেন্দ্রীয় বিএনপিকে।

গত ১৮ এপ্রিল বিএনপির নগর কমিটি গঠন করা হয়। এতে হাবিব-উন-নবী খান সোহেল ও কাজী আবুল বাশারকে যথাক্রমে ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এবং  আবদুল কাইয়ূম ও আহসান উল্লাহকে যথাক্রমে ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক করা হয়।

নগর বিএনপির নেতারা স্বীকার করছেন, বর্তমান মহানগর বিএনপির কমিটি হরতাল, অবরোধ কিংবা বিক্ষোভ মিছিল অর্থাৎ রাস্তার কর্মসূচি পালন করেন নাই। তবে তারা দাবী করেছেন, কেন্দ্র থেকে মাঠের কোন কর্মসূচি না থাকায় মহানগর বিএনপির কমিটি কাজ করতে পারছে না।

রাজপথের আন্দোলনের ব্যর্থতা স্বীকার করে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আহসান উল্লাহ বলেন, আমরা হয়তো সরকারের রোষানলে পড়ার মতো রাজপথে কোন কর্মসূচি করি নাই। কিন্তু গতানুগতিক কর্মসূচি করে যাচ্ছি। যেমন নেত্রী  ও তারেক রহমানের কারামুক্তি দিবসের আলোচনা সভা করেছি।

একই কথা বলেছেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল বাশার। তিনি বলেন, আন্দোলন সংগ্রামের বিষয়টি আমাদেরে মাথায় আছে। আমাদের এ কমিটির সময় কেন্দ্র এমন কোন প্রোগ্রাম দেইনি যে, নেতাকর্মীরা রাস্তায় নেমে  আন্দোলন করব । আমাদের কেন্দ্রীয় নেতারাও চাচ্ছে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার সমাধান করতে। যদি না হয় তাহলে আন্দোলন ছাড়া কোন উপায় নেই।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সাবেক এক কমিশনার ও বিএনপির নেতা বলেন, এ কমিটির বয়স সাত মাস হয়ে গেছে। তারা এখনও পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করতে পারেনি। তাহলে আন্দোলন কাকে সঙ্গে নিয়ে করবে। তিনি আরও বলেন, ধরেন আগামীকাল হরতাল ডাকলো বিএনপি। আমার নির্বাচনী এলাকায় মহানগর বিএনপির পক্ষ থেকে কারা হরতাল সফল করবে? মহানগর বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটিতেও আমি নাই। আবার আমার থানার কমিটিও নেই। তাহলে কি হরতাল সফল হবে?

উল্লেখ্য, ১৮ এপ্রিল ঘোষিত বিএনপির এই গুরুত্বপূর্ণ কমিটি দুটির পূর্ণাঙ্গ করতে এক মাস সময় দেওয়া হয়েছিলো। ৭ মাস পার হলেও পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করতে পারেনি ঢাকা মহানগর বিএনপির উভয় শাখা।

পূর্ণাঙ্গ কমিটি প্রসঙ্গে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল বাশার বলেন, ৭০ জনকে দিয়ে আংশিক কমিটি গঠন করা হয়েছে। একটা কমিটিতে ৭০ নেতা এ্যাকটিভ থাকলে আর পূর্ণাঙ্গ কমিটির দরকার আছে?

ঢাকা মহানগর উত্তরের সাধারণ সম্পাদক আহসান উল্লাহ জুম বাংলাকে বলেন, ২৬টা থানা নিয়ে মহানগর উত্তরের কমিটি। চাইলেও এক মাসের মধ্যে কমিটি করতে পারি না। যাচাই-বাচাঁই করে দলীয় নেতা-কর্মীদের দিয়ে কমিটি দিতে চাইলে তা স্বল্প সময়ে মধ্যে সম্ভব না।