অর্থনীতি-ব্যবসা

দৈনিক মোবাইলে লেনদেন হচ্ছে ৮৪৪ কোটি টাকা

বাংলাদেশে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে দৈনিক ৮৪৪ কোটি টাকা লেনদেন হচ্ছে। সোমবার সংসদে এই তথ্য দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। তিনি অনুপস্থিত থাকায় তার পক্ষে প্রশ্নের উত্তরগুলো অধিবেশনে উপস্থাপন করেন খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম।

চট্টগ্রামের সংসদ সদস্য এম এ লতিফের প্রশ্নের জবাবে মুহিত জানান, বর্তমানে মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসের (এমএফএস) মাধ্যমে দৈনিক গড়ে ৪৯ লাখ ৫ হাজারটি লেনদেন হয়। এতে গড়ে দৈনিক লেনদেনকৃত অর্থের পরিমাণ ৮৪৪ কোটি ২৩ লাখ টাকা।

সংসদে আরও জানানো হয়, বর্তমানে এমএফএস সার্ভিস প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ১৭টি। এজেন্ট সংখ্যা ৭ লাখ ৪৬ হাজার এবং গ্রাহক ৫ কোটি ২৬ লাখ।

বাংলাদেশে মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসের জনপ্রিয়তা দিন দিনই বাড়ছে। এত গ্রাহক বিশ্বের আর কোনো দেশে নেই বলে দাবি করে আসছেন সাবেক গভর্নর আতিউর রহমান, যার সময়েই এটি চালু হয়।

আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিমের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান, রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন ব্যাংকগুলোর ৩ হাজার ৭২৫টি শাখার মধ্যে ৩২৮১টি শাখা (৮৮%) গ্রাহকদেরকে পরিপূর্ণ অন-লাইন সেবা দিচ্ছে।

মামুনুর রশীদ কিরণের প্রশ্নের জবাবে সংসদে জানানো হয়, ২০০৯-১০ সাল থেকে জুন, ২০১৭ পর্যন্ত বিভিন্ন দাতা দেশ ও সংস্থা হতে ২ দশমিক ৪৫ বিলিয়ন ডলার অনুদানের প্রতিশ্রুতি পাওয়া গেছে।

মন্ত্রীর তথ্য অনুযায়ী ৬টি দেশ বা সংস্থা খাদ্য সংরক্ষণ এবং ২১টি দেশ বা সংস্থা মানব সম্পদ উন্নয়নে এই অনুদানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

গোলাম দস্তগীর গাজীর প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান, বর্তমানে দেশে করদাতার সংখ্যা ২৯ লাখ ২৮ হাজার ৯৩ জন।

সরকারি দলের তানভীর ইমামের প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী জানান, বর্তমান সরকারের দুই মেয়াদে (২০০৯ থেকে এ পর্যন্ত) অবৈধভাবে আসা চার হাজার ৪৯০ কেজি ৪৯৩ গ্রাম স্বর্ণ আটক করা হয়েছে।

জাতীয় পার্টির এ কে এম মাঈদুল ইসলামের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান, গত ২০১৫-১৬ অর্থ বছরে বিদেশ থেকে ১৪ দশমিক ৯৩ বিলিয়ন ডলার রেমিটেন্স এসেছে। একই অর্থ বছরে বাংলাদেশ হতে বিদেশে রেমিটেন্স গেছে ৩৭ দশমিক ১ মিলিয়ন ডলার।