খেলা-ধুলা

দাবা অঙ্গনে পিতা-পুত্রের প্রথম লড়াই!

vএবারের দাবা লীগে সর্ব কনিষ্ঠ খেলোয়াড় তাহসিন তাজওয়ার জিয়া। গোল্ডেন স্পোর্টিং ক্লাবের হয়ে খেলছেন ১১ বছর বয়সী এই খুদে দাবাড়ু। তার পিতা গ্র্যান্ড মাস্টার জিয়াউর রহমান খেলছেন শেখ রাসেল মেমোরিয়াল স্পোর্টিং ক্লাবের হয়ে। গতকাল লীগের দ্বিতীয় রাউন্ডেই মুখোমুখি পিতা-পুত্র। দাবা অঙ্গনে পিতা-পুত্রের লড়াই এবারই প্রথম।
খেলা শুরুর আধাঘণ্টা আগেই পিতা-পুত্রের লড়াই দেখতে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের জিমন্যাশিয়ামে হাজির অনেকে। তার আগেই ছেলে ও স্ত্রীকে নিয়ে হাজির জিয়া। পিতা-পুত্রকে দেখেই দাবার লিজেন্ড রানী হামিদ বললেন, ‘আজ তো বড় খেলা। বাপ-বেটার লড়াই।’ এই বলে তাজওয়ারের সঙ্গে ছবিও তুললেন। কেবল রানী হামিদই নন, এমন ঘটনার সাক্ষী থাকতে অনেকেই ছবি তোলার লোভ সামলাতে পারলেন না। অন্য টেবিল থেকে খুনসুটি করে আরেক গ্র্যান্ড মাস্টার নিয়াজ মোর্শেদ তাহসিনকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘আজ বাবাকে (জিয়া) হারাতেই হবে। যদি হারাতে পারো, তাহলে আইপ্যাড পুরস্কার পাবে।’ ৩২ বছর ধরে দাবা খেলছেন জিয়া। ২০০২ সালে দ্বিতীয় বাংলাদেশি হিসেবে গ্র্যান্ড মাস্টারের খেতাব অর্জন করেন। আর ২০০৫ সালে বাংলাদেশি দাবাড়ুদের মধ্যে সর্বোচ্চ ফিদে রেটিং ২৫৭০ অর্জন করেছিলেন। অন্যদিকে মাত্র চার বছর দাবায় ক্যারিয়ার তাজওয়ার তাহসিন জিয়ার। সপ্তম শ্রেণিতে থাকা অবস্থায় প্রথম নর্ম অর্জন করে। আর এখন তার রেটিং ১৮০৬। পিতা জিয়ার ২৫১০। বাবার চেয়ে মাত্র ৭০৪ রেটিং পিছিয়ে ছেলে তাজওয়ার।
এই বয়সেই বাবার সঙ্গে সর্বোচ্চ আসর প্রিমিয়ার দাবা লীগে খেলছে সে। তাহলে বাবার মতো ৪০ বছরে কি করবে? বুক ফুলিয়ে জিয়া জানিয়ে দিলেন, ‘ঠিক মতো খেলতে পারলে আমাকে অনেক আগেই ছাড়িয়ে যাবে তাজওয়ার।’ তিনি যোগ করেন, ‘তবে চাপ অনুভব করছি। (হেসে দিয়ে) যদি ছেলের কাছে হেরে যাই। তবে ভালোই লাগছে।’ বাবা গ্র্যান্ড মাস্টার। প্রথমবার বড় আসরে মুখোমুখি। কিছুটা আপসেট দেখা গেল তাজওয়ারকে। তবে ঘুঁটির চাল দেয়ার আগে সে জানায়, ‘একটু নার্ভাস ফিল করছি। কি হবে জানি না।’ একদিকে স্বামী, অন্যদিকে ছেলে। কাকে সমর্থন করবেন জিয়ার স্ত্রী তাসনিম সুলতানা। তার সোজা সাপ্টা উত্তর, ‘আমি ছেলেকেই সমর্থন করছি।’ বাবা মায়ের উৎসাহে অল্প কয়েক বছরে ঠিকই নিজেকে মেলে ধরেছেন জিয়ার তনয়। ছেলের সাম্প্রতিক উন্নতি দেখে জিয়ার আশা তার ছেলে গ্র্যান্ড মাস্টারের গণ্ডি পেরিয়ে সুপার গ্র্যান্ড মাস্টার হবে। বাবার দেখানো পথেই যেন হাঁটছে তাজওয়ার। চলতি বছরের মে মাসে ভারতের উড়িষ্যায় অনুষ্ঠিত কিট ইন্টারন্যাশনাল ফেস্টিভাল দাবায় অনূর্ধ্ব-১১ বিভাগে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন তাহসিন তাজওয়ার। এছাড়া অনূর্ধ্ব-২০০০ রেটিং প্রাপ্তদের আসরে তার অবস্থান ছিল ২৯তম। জিয়া তথ্য দেন ২০১০ সালে ৫ বছর বয়সেই তাহসিন মালয়েশিয়ার একটি র‌্যাপিড দাবায় বেশ ভালো করেছিল। দেশের বাইরে মালয়েশিয়া, ভারত, ছাড়াও ইংল্যান্ড, স্পেন ও জিব্রাল্টারের টুর্নামেন্টে অংশ নিয়েছেন খুদে এই দাবাড়ু। দেশেও নিজের প্রতিভার স্বাক্ষর রেখেছেন জিয়ার সন্তান। সাইফ পাওয়ারটেক রেটিং দাবায় দুজন ফিদে মাস্টারসহ তিনজনের সঙ্গে ড্র করে অনেককে চমকে দিয়েছে সে। জাতীয় ‘বি দাবা চ্যাম্পিয়নশিপের চতুর্থ রাউন্ডে তাজওয়ার হারিয়ে ছিলেন দেশের মহিলা আন্তর্জাতিক মাস্টার ৭২ বছর বয়সের রানী হামিদকে।

ভিডিও:সেলুন ও বিউটি পার্লার আড়ালে যুবতীদের রমরমা দেহ ব্যাবসার গোপন (ভিডিও)

Advertisements

Add Comment

Click here to post a comment