Advertisements
আন্তর্জাতিক

তুর্কি নেতা ফেতুল্লাহ গুলেনের পথেই ইমরান খান হাঁটছেন

পাকিস্তানের পরিকল্পনা ও উন্নয়নমন্ত্রী আহসান ইকবাল সরকারকে অস্থিতিশীল করার জন্য তেহরিক-ই-ইনসাফের চেয়ারম্যান ইমরান খান তুরস্কের নির্বাসিত ধর্মীয় নেতা ফেতুল্লাহ গুলেনের মডেল অনুসরণ করছে বলে অভিযোগ করেছেন। শুক্রবার পাকিস্তানের ডন নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ইমরান খানকে ফেতুল্লাহ গুলেনের সঙ্গে তুলনা করেন তিনি। পাকিস্তানের এই মন্ত্রীর মতে, যুক্তরাষ্ট্রে নির্বাসিত থাকাকালীন তুরস্কের রাজনৈতিক ব্যবস্থায় একটি নেটওয়ার্ক স্থাপন করে তিনি রাজনৈতিক ব্যবস্থা নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করছেন।

গত বছরের ১৫ জুলাই তুরস্কে এক গণ-অভ্যুত্থানের চেষ্টা করা হয়। যদিও সাধারণ মানুষ রাস্তায় নেমে আসলে সেই চেষ্টা ব্যর্থ হয়। পরে দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়িপ এরদোগান এ ঘটনার জন্য দায়ী নির্বাসিত ধর্মীয় নেতা ফেতুল্লাহ গুলেনকে দায়ী করেন। আহসান ইকবাল বলেন, একই পদ্ধতিতে ইমরান খানও তার মতাবলম্বী সরকারি কর্মকর্তা ও সমর্থকদের নিয়ে সরকারকে অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করছেন।

মূলত ইমরান দেশটির গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়াকে নিজের স্বার্থে ব্যবহার করছেন বলে মনে করেন পাকিস্তানের সরকারের এই মন্ত্রী। পানামা পেপারস কেলেঙ্কারিতে নওয়াজ শরিফ ও তার সন্তানদের দৃশ্যত দোষী সাব্যস্ত করেছে সুপ্রিম কোর্ট গঠিত জয়েন্ট ইনভেস্টিগেশন টিম (জেআইটি)। ফলে তিনি প্রধানমন্ত্রিত্ব ধরে রাখতে পারবেন কিনা তা এখন বড় প্রশ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত বছরের নভেম্বরের শুরুতে এই ইস্যু নিয়ে নওয়াজের পদত্যাগের দাবিতে তীব্র আন্দোলন করেন দেশটির সাবেক ক্রিকেট তারকা ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ। এরপরই নওয়াজের বিরুদ্ধে বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠনের নির্দেশ দেন দেশটির সুপ্রিম কোর্ট।

Advertisements





সর্বশেষ খবর