বিনোদন

তিন বছর পর সস্তির নিঃশ্বাস পেলো রণবীর

aye-dil-2একেবারে কোণঠাসা দশা থেকে একটু নিঃশ্বাস নেওয়ার অবকাশ পেলেন। ২০১৩ সালের পর থেকে কোনও হিট নেই রণবীর কপূরের। ‘অ্যায় দিল হ্যায় মুশকিল’ সেই খরা কাটাল। ছবি বক্স অফিসে জমি শক্ত করে নিয়েছে। পাঁচ দিনে প্রায় ৬৭ কোটি টাকার কালেকশন। এবার একটু স্বস্তি পেতে পারেন রণবীর।

একদিকে তাঁর পর পর ফ্লপ। অন্যদিকে ঘাড়ের কাছে নিঃশ্বাস ফেলছেন নেমসেক। যাঁর বক্স অফিস এখনও পর্যন্ত ১০০ শতাংশ সফল। রণবীর সিংহের কথা না হয় বাদই দেওয়া গেল। বরুণ ধবন, সিদ্ধার্থ মলহোত্র এমনকী, টাইগার শ্রফও পরপর হিট দিয়ে যাচ্ছেন।

কিন্তু তিন বছর সহ্য করতে হল। নিজেকে নানা রকম মোড়কে হাজির করার চেষ্টা করছিলেন রণবীর এই সময়টায়। কিন্তু ‘ইয়ে জওয়ানি হ্যায় দিওয়ানি’র বানি কিছুতেই ক্যারিশমাটা দেখিয়ে উঠতে পারছিলেন না। ‘বেশরম’, ‘রয়’ চূড়ান্ত ফ্লপ। অনুরাগ কাশ্যপের ‘বম্বে ভেলভেট’ নিয়ে একটা আশা ছিল। তবে ওভারহাইপ্‌ড ছবির ফ্লপের ধাক্কাটাও জোরদারই হয়! ইমতিয়াজ আলির ‘তামাশা’ও ধোপে টিকল না। সব মিলিয়ে ৬৭ কোটি টাকা দেশের বাজার থেকে জোগাড় করতে পেরেছিল ‘তামাশা’।

ফ্লপের বোঝা যতই থাক, কেউ রণবীরের অভিনয় ক্ষমতা নিয়ে কোনও প্রশ্ন তোলেননি। প্রশ্নের অবকাশ তিনি রাখেননি। ‘বম্বে ভেলভেট’এর রদ্দি চিত্রনাট্যেও জনি বলরাজের চরিত্রে ফাটিয়ে দিয়েছিলেন। ‘তামাশা’তেও কম যাননি। ঘনিষ্ঠদের মতে, রণবীর একই রকম চিত্রনাট্য বাছাই করছিলেন পর পর। কেরিয়ার আর প্রেম নিয়ে ঘেঁটে থাকার চরিত্র তিনি ‘ওয়েক আপ সিড’, ‘রকস্টার’, ‘ইয়ে জওয়ানি হ্যায় দিওয়ানি’তে করেছেন।

‘অ্যায় দিল…’ হয়তো রণবীরের কেরিয়ারকে সাময়িক স্বস্তি দিয়েছে। ভবিষ্যতে চিত্রনাট্য বাছাইয়ে গরমিল হলে মুশকিল আছে। তাঁর হাতে এখন অনুরাগ বসুর ‘জগ্গা জাসুস’। কবে মুক্তি পাবে, কেউ জানে না! তাঁর পর যাঁরা ইন্ডাস্ট্রিতে এসেছেন তাঁদের হাতে রণবীরের চেয়ে বেশি ছবি।

তবে নামটা যখন রণবীর কপূর, তখন তো ভরসা রাখাই যায়!

ভিডিও নিউজ :   ৪ বছরের বাচ্চার ডান্স দেইখা পুরাই মাথা নস্ট, ভিডিওতে দেখুন

 

Add Comment

Click here to post a comment