আইন-আদালত

ঢাকার ৪ থানার ওসিকে আদালত অবমাননার রুল

1aরাজধানীর জিরো পয়েন্ট থেকে সদরঘাট পর্যন্ত এলাকার রাস্তা ও ফুটপাত দখলমুক্ত করতে আদালতের নির্দেশনা অনুসরণ না হওয়ায় চার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) প্রতি আদালত অবমাননার রুল দিয়েছেন হাইকোর্ট।

আদালত অবমাননার অভিযোগে কেন তাঁদের বিরুদ্ধে কার্যক্রম শুরু করা হবে না, রুলে তা জানতে চাওয়া হয়েছে।

আজ সোমবার বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এক আদালত অবমাননার আবেদনের শুনানি নিয়ে এই রুল দেন।

চার পুলিশ কর্মকর্তা হলেন বংশাল থানার ওসি নূর ই আলম সিদ্দিকী, কোতোয়ালি থানার ওসি আবুল হাসান, সূত্রাপুর থানার ওসি আশরাফ উদ্দিন ও শাহবাগ থানার ওসি আবু বকর সিদ্দিক।

আবেদনকারীর আইনজীবী মনজিল মোরসেদ বলেন, চার পুলিশ কর্মকর্তাকে দুই সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। এক রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে চার বছর আগে হাইকোর্ট এ বিষয়ে নির্দেশনাসহ রুল দেন।

২০১২ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্টের দেওয়া আদেশে জিরো পয়েন্ট থেকে সদরঘাট এলাকার রাস্তা ও ফুটপাতে থাকা দোকান, ফেরিওয়ালা, ফলের দোকান, রাস্তার ওপর বালু, রড বা যেকোনো পণ্য রাখা, ভ্যানগাড়ি ও ঠেলাগাড়ি পার্কিং করাসহ রাস্তা ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে দখলমুক্ত করতে নির্দেশ দেওয়া হয়। একটি ট্রাফিক দল দিয়ে তদারকি করতে ও ৩০ দিন পরপর এ বিষয়ে অগ্রগতি জানিয়ে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়। জনস্বার্থে হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের করা এক রিটে এই আদেশ আসে।

আদালতের দেওয়া এই নির্দেশনা মানা হচ্ছে না জানিয়ে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে রাস্তা দখলমুক্ত করতে গত ৩১ অক্টোবর ওই চার পুলিশ কর্মকর্তাকে আদালত অবমাননার নোটিশ পাঠান মনজিল মোরসেদ। এতে বলা হয়, অন্যথায় আদালত অবমাননার আবেদন করা হবে। এর ধারাবাহিকতায় গতকাল রোববার আদালত অবমাননার আবেদনটি করা হয়। আজ সোমবার আদালত শুনানি নিয়ে ওই রুল দেন।

Add Comment

Click here to post a comment