Default

ডেসটিনির দুই কর্মকর্তার জামিন ২৫০০ কোটি টাকায় মিলবে

qসরকারি কোষাগারে ২৫০০ কোটি টাকা জমা দেয়ার শর্তে জামিন মিলবে ডেসটিনি গ্রুপের চেয়ারম্যান রফিকুল আমীন ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মোহাম্মদ হোসেনের।

রোববার প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার নেতৃত্বাধীন ৪ সদস্যের আপিল বেঞ্চ ডেসটিনির এই দুই কর্মকর্তার জামিন মঞ্জুর করে হাইকোর্টের দেয়া আদেশের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) করা লিভ টু আপিল নিষ্পত্তি করে ওই আদেশ দেন।

আপিল বিভাগ জামিন প্রশ্নে বলেন, আগামী ৬ সপ্তাহের মধ্যে পার্বত্য জেলাগুলোতে ডেসটিনির যে ৩৫ লাখ গাছ আছে তা বিক্রি করে সরকারি কোষাগারে ২৮শ’ কোটি টাকা জমা দিলে তারা জামিন পাবেন।
অথবা নগদ ২৫শ’ কোটি টাকা জমা দিলে রফিকুল আমীন ও মোহাম্মদ হোসেন মুক্তি পেতে পারেন।

আপিল বিভাগের আদেশে আরও বলা হয়, ডেসটিনির এই টাকা দুদক ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে বিতরণ করবেন।

আদালতে আসামিপক্ষে ছিলেন আজমালুল হোসেন কিউসি। আর দুদকের পক্ষে ছিলেন খুরশীদ আলম খান।

এর আগে গত ২০ জুলাই বিচারপতি মো. রুহুল কুদ্দুসের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ শর্তাসাপেক্ষে ডেসটিনির রফিকুল আমীন ও মোহাম্মদ হোসেনকে জামিন দেন।

শর্তগুলো ছিলো তাদেরকে সংশ্লিষ্ট থানায় পাসপোর্ট জমা দিতে হবে ও বিদেশে যেতে হলে আদালতের অনুমতি নিতে হবে।

পরে দুদকের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আপিল বিভাগ এই জামিন স্থগিত করে দেন।

২০১২ সালের ৩১ জুলাই ডেসটিনি গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) রফিকুল আমীন ও মোহাম্মদ হোসেনসহ ২২ জনের বিরুদ্ধে দুটি মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

সাধারণ বিনিয়োগকারীদের বিনিয়োগ থেকে ডেসটিনি মাল্টিপারপাস কো-অপারেশন (এমএলএম) ও ট্রি-প্ল্যানটেশন প্রকল্পের নামে গ্রাহকদের কাছ থেকে সংগৃহীত অর্থের মধ্য থেকে ৩ হাজার ২৮৫ কোটি ২৫ লাখ ৮৮ হাজার ৫২৪ টাকা আত্মসাৎ করে পাঁচারের অভিযোগে রাজধানীর কলাবাগান থানায় মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইনে তাদের বিরুদ্ধে এই মামলা করা হয়।

বর্তমানে ডেসটিনির এই দুই শীর্ষ কর্মকর্তা কারাগারে আটক রয়েছেন।

Add Comment

Click here to post a comment