খেলা-ধুলা

টুর্নামেন্টের সেরা আবিষ্কার হাসান আলি, হতাশায় মোস্তাফিজ

টুর্নামেন্ট শুরুর আগে আইসিসি তাকে নজরে রাখতে বলেছিল, যারা আলো কাড়তে পারে এমন তালিকায় রেখে। মোস্তাফিজুর রহমানের ওপর নজর রাখতে বলেছিলেন তাবৎ ক্রিকেট বিশ্লেষকরাও। বাংলাদেশ দল ও ক্রিকেটপ্রেমীরাও অনেক আশা নিয়ে নজর রেখেছিল দলের পেস ব্যাটারির দিকে। কিন্তু সবশেষে কেবল টাইগার জার্সিতেই নন, টুর্নামেন্টের বোলারদের তালিকাতেই একবুক হতাশার নাম ফিজ। সেখানে পাকিস্তানের হাসান আলি চমক হয়ে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি।

এবারের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি দুহাত ভরে দিয়েছে ব্যাটসম্যানদের। ঠিক উল্টোটা ছিল বোলারদের ক্ষেত্রে। মোস্তাফিজের জন্য সেটি আরো বেশি করে কঠিন বাস্তব ছিল। টুর্নামেন্ট শেষে দেখা যাচ্ছে বোলারদের তালিকায় ৪৮তম স্থানে আছেন টাইগার বাঁহাতি পেসার। ৪ ম্যাচে ২৯ ওভার হাত ঘুরিয়ে ১৮৩ রান খরচায় নিতে পেরেছেন মাত্র এক উইকেট।

অনেক অনিয়মিত বোলারও মোস্তাফিজের চেয়ে উপরে আছেন, বেশি উইকেট নিয়েছেন বা কম রান দিয়েছেন। বাংলাদেশের মোসাদ্দেক হোসেনেরই আছে যেমন ৩ উইকেট, মাত্র ১২.২ ওভার বল করে। এমনকি সাব্বির রহমানও এক উইকেট নিয়েছেন মাত্র ২.১ ওভার বল করে!

ভারতের স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিনও মোস্তাফিজের মতই দুর্দশায় ছিলেন। ৩ ম্যাচে ২৯ ওভার বল করে ১৬৭ রানে নিতে পেরেছেন এক উইকেট। মোস্তাফিজ অবশ্য বোলিং তালিকার দিকে চোখ দিলে সান্ত্বনা পেতে পারেন অন্য অনেক আশাজাগানিয়া বোলারের দুর্দশাগ্রস্ত পারফরম্যান্সে। সাউথ আফ্রিকার কাগিসো রাবাদা, নিউজিল্যান্ডের মিচেল স্যান্টনারদের মত বোলাররা হতাশ করেছেন। হতাশার এই তালিকাটা অনেক দীর্ঘ এবার।

টুর্নামেন্টে হাত ঘোরানো প্রথম ৫০জন বোলারের মধ্যে ৫ বা তার বেশি উইকেট পেয়েছেন মাত্র ১৪ জন। সেখানে দশের উপর উইকেট মাত্র একজনের। টুর্নামেন্ট সেরা হাসান আলি। বোলারদের জন্য বধ্যভূমি ইংলিশ উইকেটে আলো কাড়া পাঁচ বোলারের তালিকায় তাই শীর্ষে হাসান-

হাসান আলি
চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে পাকিস্তানের অন্যতম সেরা আবিষ্কার হলেন হাসান আলি। টার্ন-বাউন্সবিহীন ইংলিশ পিচে উইকেটের ফুল ফুটিয়েছেন এই ২৩ বর্ষী ডানহাতি মিডিয়াম পেসার। ৫ ম্যাচে ১৩ উইকেট নিয়ে হয়েছেন আসর সেরা খেলোয়াড়।

টুর্নামেন্ট সেরার গোল্ডেন বল হাতে হাসান আলি

জস হ্যাজেলউড
গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নেয়া অস্ট্রেলিয়ার সান্ত্বনা জস হ্যাজেলউডের উইকেট শিকারিদের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে থাকা। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৫২ রানে ৬ উইকেট পাওয়া হ্যাজেলউডের উইকেট সংখ্যা ৩ ম্যাচে ৯টি।

জুনাইদ খান
আসরে উইকেট শিকারের দিক দিয়ে সবচেয়ে সফল দল পাকিস্তান। হাসান আলির পর সেরা পাঁচের দুইয়ে তাদের জুনাইদ খান। তালিকার তিনে থাকা এই পাকিস্তানি পেসারের ঝুড়িতে গেছে ৪ ম্যাচে ৮ উইকেট।

লিয়াম প্লাঙ্কেট
অনেকদিন পরে জাতীয় দলের স্কোয়াডে ফিরে সফল ইংলিশ বোলার লিয়াম প্লাঙ্কেট। ৪ ম্যাচে ৮ উইকেট নিয়ে সেরা বোলারদের চারে আছেন।

আদিল রশিদ
সদ্যগত আসরে তুলনামূলক সফল লেগস্পিনাররা। আসরে ৪ ম্যাচে ৭ উইকেট নিয়ে স্বাগতিকদের লেগি আদিল রশিদ আছেন সেরা বোলারদের পঞ্চম স্থানে।

এছাড়া ৭ উইকেট আছে ভারতের ভুবনেশ্বর কুমারেরও। নিউজিল্যান্ডের অ্যাডাম মিলনে ও শ্রীলঙ্কার নুয়ান প্রদীপ নিয়েছেন ৬টি করে উইকেট।



আজকের জনপ্রিয় খবরঃ

গুরুত্বপূর্ণ অ্যাপ:

  1. বুখারী শরীফ Android App: Download করে প্রতিদিন ২টি হাদিস পড়ুন।
  2. পুলিশ ও RAB এর ফোন নম্বর অ্যাপটি ডাউনলোড করে আপনার ফোনে সংগ্রহ করে রাখুন।
  3. প্রতিদিন আজকের দিনের ইতিহাস পড়ুন Android App থেকে। Download করুন