খেলা-ধুলা

জাতীয় দলে সুযোগ পাওয়া নিয়ে যা বললেন সেই মেহেদী

1এই বয়সে এসে বাংলাদেশে কেউ সাধারণত আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার শুরুর স্বপ্ন দেখতে পারে না, মেহেদী মারুফ সেটা ভালোমতোই বুঝতে পারছেন। তবুু তার অতৃপ্তি হয়ে আছে, বিপিএলের শেষের কয়েকটা ম্যাচ। নিজেকে যে আরও ওপরে দেখতে চেয়েছিলেন অতৃপ্ত মারুফ।

বিপিএলে তার দল ঢাকা ডায়নামাইটস চ্যাম্পিয়ন হয়েছে, বিসিবির ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামের আওতায় সুযোগ পেয়েছেন বাংলাদেশ দলের অস্ট্রেলিয়ায় প্রস্তুতি ক্যাম্প ও নিউজিল্যান্ড সফরে। চারদিকে তাকে নিয়ে স্তুতি। অথচ এমন দিনেও মারুফের মনে বিরাট অতৃপ্তি।

বিপিএলে শুরুটা যেভাবে হয়েছিল মারুফের, শেষ দিকে ছন্দটা ঠিক ধরে রাখতে পারেননি তিনি। বিপিএলের ১৪ ম্যাচ শেষেও ব্যাটসম্যানদের সবার ওপরেই ছিলেন মারুফ। প্রথম ৫ ম্যাচে যেখানে তাঁ র রান ছিল ২০৩, পরের ৯ ম্যাচে সেটি ১৪৪। ১৪ ম্যাচে দুই হাফ সেঞ্চুরিতে ৩৪৭ রান করে আছেন শীর্ষ ছয়ে। একটি জায়গায় অবশ্য ঢাকা ওপেনারই এগিয়ে, ২০ ছক্কা মেরে আছেন সবার ওপরে।

শুরুতেই মারুফ লক্ষ্য ঠিক করেছিলেন, এবার বিপিএলে নিজেকে চেনাতে হবে আলাদাভাবে। সে লক্ষ্য তার পূরণও হয়েছে। তবুও তার মনে খচখচানি, কোথায় যেন খামতি থেকে গেছে ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সে, ‘যা কিছু ঘটে গেল গত কদিনে, খুব একটা স্বপ্নের মতো মনে হচ্ছে না। টুর্নামেন্টে যদি ৪০০ রান করতাম…পারফরম্যান্স দিয়ে সরাসরি জাতীয় দলে চলে আসতাম তাহলে আরও ভালো লাগত। শেষ দিকে কয়েকটি ম্যাচ ভালো না খেলায় দ্বিধায় ছিলাম নির্বাচকেরা আমাকে নেবেন কি নেবেন না। আসলে নিজের খেলায় সন্তুষ্ট নই। আরও ৫০-৬০ রান যদি করতাম…।’

কিন্তু তারপরও যা হয়েছে মারুফের জন্য মন্দ নয়। প্রস্তুতি ক্যাম্পে অংশ নিতে তিনিও থাকছেন অস্ট্রেলিয়ায়। বিপিএলের পারফরম্যান্সে আত্মবিশ্বাসী মারুফের চোখে এখন নতুন স্বপ্ন, ‘ভাবিনি বিপিএল দিয়ে এই পর্যায়ে সুযোগ পাব। এখন সবচেয়ে বড় স্বপ্নটা পূরণে যত কষ্ট বা ত্যাগ স্বীকার করতে হয় করব।’

ভিডিওঃ শুটিংয়ের আগে যেভাবে মেক আপ করেন সানি লিওন… (ভিডিও সহ)

Advertisements

Add Comment

Click here to post a comment