খেলা-ধুলা

জাতীয় দলের কোচ সাবেক অজি পেসার জেসন গিলেস্পি

অস্ট্রেলিয়ার সাবেক পেসার ও ইয়র্কশায়ারের কোচ জেসন গিলেস্পিকে জাতীয় দলের অন্তর্বর্তীকালীন কোচ হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে পাপুয়া নিউ গিনি। ২০১৯ সালের বিশ্বকাপ বাছাইপর্বকে সামনে রেখে তারা গিলেস্পিকে নিয়োগ দিয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন ক্রিকেট পাপুয়া নিউ গিনির প্রধান নির্বাহী গ্রেগ ক্যাম্পবেল। একই সাথে তিনি জানিয়েছেন, দলটির সাবেক পরামর্শক দিপক প্যাটেলের স্থলাভিষিক্ত করা হয়েছে গিলেস্পিকে।
সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়া’এ দলের কোচ হিসেবে নিয়োগ পেয়েছিলেন গিলেস্পি। কিন্তু বেতন সংক্রান্ত বিষয়াদী নিয়ে দলটির দক্ষিণ আফ্রিকা সফর বাতিল হয়ে যাওয়ায় ৪২ বছর বয়সী এই পেসার সিদ্ধান্ত নেন সংক্ষিপ্ত সময়ে জন্য পিএনজির সাথে কাজ করার সুযোগটি কাজে লাগানোর। পিএনজি সম্পর্কে বেশ কিছু ভাল বিষয় জানার পরেই দলটির প্রতি আগ্রহী হয়েছেন গিলেস্পি।
ক্রিকেট.কম.এইউ’র কাছে দেয়া এক সাক্ষাতকারে গিলেস্পি বলেছেন, ‘নতুন দায়িত্ব নিয়ে আমি সত্যিই বেশ আগ্রহী। ভিন্ন একটি দেশের ভিন্ন একটি দলের ক্রিকেটীয় অভিজ্ঞতা সম্পর্কে আমি জানতে পারবো। এটা আমার অভিজ্ঞতা ও শিক্ষাকে সমৃদ্ধ করবে। আশা করছি, ভবিষ্যতে এই অভিজ্ঞতা কাজে আসবে। নতুন দলটির খেলোয়াড়দের সাথে কাজ করতে আমি মুখিয়ে আছি।
তারা কিভাবে আমার সাথে কাজ করে তার অপেক্ষায় আছি। আমি দলটির বেশ কিছু ভাল দিক সম্পর্কে জেনেছি। প্রাক-মৌসুম প্রস্তুতির অংশ হিসেবে পাপুয়া নিউ গিনি আবু ধাবীতে ইয়র্কশায়ারের বিপক্ষে খেলেছে। সেই ম্যাচটিতে পিএনজি দারুণ খেলেছে।’
২০১৫ সালের বিশ্বকাপে অল্পের জন্য খেলা হয়নি পিএনজির। কিন্তু এবার ২০১৯ সালের বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ আর তারা হারাতে চায়না। সেই লক্ষ্যেই গিলেস্পির মত কোচকে তারা নিয়োগ দিয়েছে। ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট চ্যাম্পিয়শীপে তারা বর্তমানে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ দুটি ম্যাচে ফলাফল ভাল করতে পারলেই শীর্ষ চারে থাকার সুযোগ নিশ্চিত হবে। আর এর ফলে আগামী বছরের বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে খেলার সুযোগও সৃষ্টি হবে। অক্টোবরে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচের আগে আগামী দুই মাসে পিএনজি অস্ট্রেলিয়ায় ন্যাশনাল পারফরমেন্স স্কোয়াড, দ্য অস্ট্রেলিয়ান ইনডিজেনাস টিম ও কুইন্সল্যান্ড একাদশের বিপক্ষে ম্যাচ খেলবে। ইএসপিএন ক্রিকইনফো/বাসস।