জাতীয় বিভাগীয় সংবাদ

জনসমাবেশে কাঁদলেন মির্জা ফখরুল

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নে বিএনপির নেতাকর্মীদের ওপর পুলিশি নির্যাতনের কথা স্মরণ করে আজ শনিবার রায়পুরের ঈদগাহ ময়দানে ইউনিয়ন বিএনপি আয়োজিত সদস্য সংগ্রহ অনুষ্ঠানে কেঁদেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, খুব কষ্টের মধ্যে আছেন আপনারা। এই কষ্টের মধ্যেও আমি যখন এসেছিলাম তখনো আপনাদের মুখে আমি সাহস দেখেছি। আপনাদের কোনো ভয়ের মধ্যে দেখিনি আমি। অনেক কষ্ট, অনেক যন্ত্রণা, ব্যথা-বেদনা। এর মধ্যে আমরা আমাদের অনেক বন্ধুকেও হারিয়ে ফেলেছি। তারপরও আপনারা এতটুকু নড়েননি। ‌

তিনি আরো বলেন, এখনো এই কষ্টের শেষ হয়নি। এখনো এই দখলদার সরকারের, যাদের কোনো বৈধতা নেই সরকারে থাকার, যারা জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়নি তাদের পেটোয়া বাহিনী পুলিশ তারা যখন-তখন এসে আপনাদের বাড়িঘরে হামলা করে, গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়।

আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী এবং প্রশাসনের উদ্দেশে মির্জা ফখরুল বলেন, আমাদের ঠাকুরগাঁও বড় সাধারণ জায়গা। সরল মানুষ। এই মানুষগুলোর ওপর অত্যাচার করবেন না। এই মানুষগুলোকে কষ্ট দেবেন না। মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে তাদের হয়রানি করবেন না। রাজনৈতিক সমস্যা রাজনৈতিকভাবেই মোকাবিলা করতে হবে। আমরা আমাদের কথা বলব, আপনারা আপনাদের কথা বলবেন।

বক্তব্যের এক পর্যায়ে আওয়ামী লীগকে মিথ্যাবাদী আখ্যা দিয়ে বলেন, সুন্দরবনের রামপালে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র করতে দেওয়া হবে না। এই সরকার মিথ্যাবাদী। বলছে কয়েকদিন আগে যে ইউনেস্কো এখান থেকে তাদের যে আপত্তি সেটা তুলে নিয়েছে। মিথ্যা কথা। গতকালই পুরা পেপারটা আমি পড়েছি, ইউনেস্কোর যে কনফারেন্স হয়েছে। সেখানে প্রথমেই বলছে এই সরকার তাদেরকে আশ্বাস দিয়েছে তারা আরো ফারদার পরীক্ষা-নিরীক্ষা করবে। পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার পর তারা এই প্রকল্প নিয়ে আগাবে।