বিনোদন

জনপ্রিয়তা হারাচ্ছেন মোশাররফ করিম

অভিনেতা মোশাররফ করিম। গত চার থেকে পাঁচ বছর ধরে নিজের অভিনয় দক্ষতা দেখিয়ে পেয়েছেন দর্শক জনপ্রিয়তা। বিশেষ করে ঈদ আসলেই মোশাররফ করিম। ব্যাপারটা এমনই হয়ে গিয়েছিল। এবারের ঈদুল ফিতরেও তার ব্যাতিক্রম ঘটেনি। এই ঈদেও সর্বমোট মোশাররফ করিম অভিনীত ৩২টি নাটক প্রচার হয়েছে দেশের বিভিন্ন চ্যানেলে। কিন্তু কোথায় যেন একটু কমতি দেখা গেল। বিগত ঈদগুলোতেও যেখানে দর্শক মোশাররফ করিমের নাটক দেখে একটা আওয়াজ তুলেছিল। এবারের ঈদে কিন্তু সেই আওয়াজটি কম। যেখানে মোশাররফ করিমের দেশে ও দেশের বাইরে ভক্ত আছেন তারা এবার বিশেষ করে অনলাইন দুনিয়ায় তার অভিনীত নাটক নিয়ে কিছুই বলছেন না। ঈদে এতগুলো নাটক দেখার পরও যখন কিছুই বলছেন না দর্শক! তখন কিন্তু একটি প্রশ্ন উঠেছে মিডিয়াপাড়ায়। তাহলে কি দর্শক জনপ্রিয়তা হারাচ্ছেন মোশাররফ করিম? এই প্রশ্নের উত্তর জানতে যোগাযোগ করা হয়েছিল কয়েকজন নির্মাতার সঙ্গে যারা দীর্ঘদিন ধরে নিয়মিত নাটক নির্মাণ করেন মোশাররফ করিমকে নিয়ে। তাদের মধ্যে প্রসঙ্গটি নিয়ে দুজন কথা বলেছেন।

সাগর জাহান: প্রথমেই বলে নিচ্ছি, সুপার স্টাররা কখনও জনপ্রিয়তা হারায় না। মোশাররফ করিম একজন জাত অভিনেতা। তার জনপ্রিয়তা হারাবে এমন প্রশ্ন যখন এখন উঠেছে তখন তাদেরকে বলতেই হয়, একজন অভিনয় শিল্পীর যে প্রথম দিকটি থাকতে হয় তা হচ্ছে সেন্স অব হিউমার। বাংলাদেশে অভিনয়শিল্পীদের মধ্যে মাত্র হাতেগনা কয়েক জনের মধ্যে এই গুণটা আছে। একজন মোশাররফ করিম একদিনে হয় নি। টানা ১৭ বছর মঞ্চ করে তারপর তিনি আজকের মোশাররফ করিম। যারা বলেন জনপ্রিয়তা হারাচ্ছেন তারা কি জানেন একটা মানুষের জীবন থেকে ১৭ বছর মঞ্চে ব্যয় করলে তার জীবনের কি থাকে? তিনি অভিনয়ের মানুষ দেখেই সেটা পেরেছেন। অনেক গল্প আছে মোশাররফ করিমের। যা শুনলে অবাক হয়ে যাবেন। এখন মূলকথায় আসি, মোশাররফ করিম এখন বেশি নাটকে অভিনয় করছেন। এটা কার দোষ। দোষ সব নির্মাতাদের। বিশেষ করে নতুন যারা নাটক নির্মাণ করছেন। কারণ মিডিয়াতে এসে তিনি মোশাররফ করিমকে খুঁজেন। তাকে নিয়ে নাটক নির্মাণ করবেন। এখন মোশাররফ করিম নাও বলতে পারেন না। এটারও একটি কারণ আছে সেটা হলো তারা অনেক সময় মেকআপ রুমে গিয়ে কান্নাকাটি করে হলেও মোশাররফ করিমকে বাধ্য করেন নাটকে কাজ করতে। আর দর্শকও না বুঝে অনেক সময় অনেক কিছু বলে ফেলেন। এটা আসলে ঠিক না। আমি আমার নাটক নির্মাণে খুবই যত্নশীল। বিশেষ করে মোশাররফ করিমকে নিয়ে। ওনার অভিনীত যে কটি নাটক জনপ্রিয়তা পেয়েছে প্রত্যেকটা নাটকের গল্প ও চরিত্রগুলো নিয়ে হাজারবার ভেবেছি। এমনি এমনিতেই জনপ্রিয়তা পায়নি। মোশাররফ করিমকে বলার মতো আমি কেউ না। তবুও বলব উনি যেন এখন নির্মাতা, গল্প ও চরিত্র দেখে বেছে বেছে কাজ করেন। এছাড়া কিছু বলার নাই।

মাসুদ সেজান: আসলে জনপ্রিয়তা হারাচ্ছে ব্যাপারটি ঠিক নয়। মোশাররফ করিম নিঃসন্ধেহে একজন জনপ্রিয় অভিনেতা। আমি যদি বাংলাদেশের টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রি নিয়ে বিগত দিনের কথা বলি তাহলে বলব, আসলে কেউই চিরদিন একজায়গাতে দীর্ঘদিন থাকবে এমন কোন কথা নেই। জনপ্রিয়তা তার আছে এবং থাকবে। কিন্তু এখন যে কথা উঠেছে তার নাটক দেখা নিয়ে, সেখান থেকে বের হতে হলে প্রথমে মোশাররফ করিমকে বেছে বেছে কাজ করতে হবে। তাও ভালো নির্মাতাদের সঙ্গে ভালো কিছু গল্পে। আমার মনে হয় ঢালাও ভাবে কাজ করাটা এখন ঠিক হবে না তার।’



সর্বশেষ খবর