খেলা-ধুলা

চার-ছক্কার জমজমাট বিপিএল আজ শুরু

tস্মরণীয় একটি সিরিজ খেলে গত পরশু ঢাকা ছেড়েছে ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল। তারা ঢাকা ছাড়লেও ওই সিরিজের আমেজ এখনও রয়ে গেছে। তবে ঐতিহাসিক টেস্ট জয়ের রেশ কাটার আগেই আজ থেকে মাঠে গড়াচ্ছে ধুন্ধুমার টি২০ আসর বিপিএল। মাত্র চার দিনের ব্যবধানে সাদা পোশাক ও লাল বল ছেড়ে রঙিন পোশাক আর সাদা বলে মারকাটারি ক্রিকেট শুরু করবেন মুশফিক-সাকিব-তামিমরা। তাদের সঙ্গে আসর মাতাতে চলে এসেছেন আফ্রিদি-ব্রাভোরা। বিনোদনের ষোলোকলা পূরণ করতে ক’দিন পর আসছেন টি২০র সবচেয়ে বড় ফেরিওয়ালা ক্রিস গেইলও। আগামী ৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত বুঁদ হয়ে সাত দলের বিপিএলের স্বাদ নেবেন ক্রিকেটপ্রেমীরা।

প্রথম দিনেই গত আসরের চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের মুখোমুখি হচ্ছে এক মৌসুম পর বিপিএলে ফেরা রাজশাহী কিংস। এবারও কুমিল্লার অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজা। আর বিপিএলে মাশরাফি মানেই নাকি শিরোপা। গত তিন আসরে দুটি ভিন্ন দলের হয়ে শিরোপা জিতেছেন বাংলাদেশের সীমিত ওভারের অধিনায়ক। মাশরাফি অবশ্য এসব নিয়ে ভাবতেই নারাজ, ‘একটা টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হতে গেলে ভালো খেলতে হয়, পাশাপাশি ভাগ্যও লাগে। তাই এখনই চ্যাম্পিয়নশিপের কথা বলা কঠিন। দল হিসেবে ভালো খেলার চেষ্টা করছি এখন।’ তার প্রতিপক্ষ রাজশাহী কিংসের অধিনায়ক নেতৃত্ব আছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের ড্যারেন স্যামি। নতুন দল বলেই এবার খুব বেশি প্রত্যাশা করতে ভক্তদের না করেছেন স্যামি। এর পেছনে সবচেয়ে বড় কারণ হলো, দেশি-বিদেশি মিলিয়ে এবার কুমিল্লা ভীষণ গোছানো। তাই দলের ক্রিকেটারদের টুর্নামেন্টটি উপভোগ করার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। দিনের অন্য ম্যাচে খুলনা টাইটান্সের প্রতিপক্ষ রংপুর রাইডার্স। সেখানে ফেভারিট মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের টাইটান্স। ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিক জেমকন গ্রুপের কারণেই এবার খুলনা বেশ গোছানো। ঠিক উল্টো অবস্থা রংপুরের। ক’দিন আগে মালিকানা বদলের পর ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক নিয়েও জটিলতা তৈরি হয়েছে। এ বিষয় নিয়ে গতপরশু সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ মিঠুন, মুক্তার আলীসহ বেশ কয়েকজন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজনের সঙ্গে দেখা করেছেন। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন অবশ্য পারিশ্রমিক নিয়ে কোনো ধরনের চিন্তা না করতে ক্রিকেটারদের আশ্বস্ত করেছেন। এসব সমস্যা নিয়ে তারা মাঠে কতটা কী করতে পারেন, সেটাই দেখার বিষয়। গত আসরগুলোর মতো এবারও প্রতিদিনই দুটি করে ম্যাচ থাকছে। তবে এবার দুই-তিন দিন পরপর একদিনের বিরতি থাকছে। যেন উইকেট প্রস্তুতিতে পর্যাপ্ত সময় পাওয়া যায়। উইকেট ভালোমতো প্রস্তুতি করতে না পারলে যে চার-ছয়ের বন্যা দেখতে পাবেন না দর্শকরা। যেটা হয়েছিল গত আসরে।

বাংলাদেশের জন্য বিশাল একটি চ্যালেঞ্জ ছিল ইংল্যান্ডের সফর। মাঠে দুর্দান্ত ক্রিকেট ও মাঠের বাইরে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তায় বেশ সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে সিরিজটি। এ কারণে বিপিএল নিয়েও আগ্রহ তৈরি হয়েছে পুরো বিশ্বে। বিদেশি ক্রিকেটারদের মাঝেও আস্থা ফিরে এসেছে। লিয়াম ডসনসহ বেশ কয়েকজন ইংলিশ ক্রিকেটারকে বিপিএল খেলতে বারণ করেছিল সে দেশের খেলোয়াড়দের সংগঠন। তাদের শঙ্কা ইংল্যান্ড সিরিজের মতো এতটা নিরাপত্তা বিপিএলে থাকবে না। কিন্তু এসবের তোয়াক্কা না করেই ডসন-মিলসরা চলে এসেছেন ঢাকায়। বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের হিসাব অনুযায়ী সাত দলে গতকাল বিকেল পর্যন্ত ৭৬ জন বিদেশি ক্রিকেটার ঢাকায় চলে এসেছেন। ক’দিনের মধ্যেই বিদেশিদের সংখ্যা একশ’ ছাড়িয়ে যাবে বলেই প্রত্যাশা গভর্নিং কাউন্সিলের। তাদের নিরাপত্তায় বিসিবি ও সরকারি বিভিন্ন সংস্থার পাশাপাশি ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোর নিজস্ব নিরাপত্তা আয়োজনও থাকছে। বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল সদস্য সচিব ডা. ইসমাইল হায়দার মলি্লক জানিয়েছেন, ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের মতো প্রেসিডেন্টাল নিরাপত্তা বিপিএল থাকবে না। তাই বলে নিরাপত্তার চাদর একেবারে আলগাও হচ্ছে না। কঠোর নিরাপত্তার ব্যবস্থাই করা হয়েছে।

এবার সম্প্রচারে বিপিএলে নতুন মাত্রা যোগ হচ্ছে। বাংলাদেশে যে কোনো ধরনের ক্রিকেট আয়োজনে প্রথমবারের যুক্ত হচ্ছে পিচ ক্যামেরা, আম্পায়ারের মাথায় ক্যামেরা, আল্ট্রা মোশন, থ্রি ডি অ্যানিমেশনের মতো অত্যাধুনিক প্রযুক্তি। আর ইউরোপ-আমেরিকাসহ বিশ্বের প্রায় ৮০ ভাগ অঞ্চলে এবার বিপিএল সম্প্রচার হচ্ছে।

ভিডিও:উটের বাচ্চা প্রসব কখনো দেখেছেন!!! দেখুন সেই দূর্লভ !!!! (ভিডিও)

Add Comment

Click here to post a comment