বিনোদন

চলচ্চিত্র সমিতি ও পরিবারের সদস্যদের মধ্যেকার দ্বন্দ্বের অবসান

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতি ও পরিবারের সদস্যদের মধ্যেকার দ্বন্দ্বের অবসান হয়েছে। সেই সঙ্গে চলচ্চিত্রের উন্নয়নে সবাই মিলেমিশে কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন।

শনিবার রাতে সংসদ সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদের আমন্ত্রণে তার বাসভবনে চলচ্চিত্র পরিবারের সদস্য ও চলচ্চিত্র প্রর্দশক সমিতির নেতৃবৃন্দরা এক বৈঠকে বসেন। সেখানে প্রদর্শক সমিতির সঙ্গে চলচ্চিত্র পরিবারের সদস্যদের মধ্যেকার দ্বন্দ্বের অবসান হয়। এছাড়া কি কি পদক্ষেপ নেয়া যায়? এ বিষয়েও আলোচনা হয়।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন চলচ্চিত্র পরিবারের আহবায়ক অভিনেতা ফারুক, সদস্য সচিব বদিউল আলম খোকন, শিল্পী সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগর, সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান, সহ সভাপতি রিয়াজ ও প্রযোজক খোরশেদ আলম খসরু, চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির সাধারণ সম্পাদক কাজী শোয়েব রশীদ. সমিতির উপেদেষ্ঠা সুদীপ্ত চৌধুরী ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক মিয়া আলাউদ্দীন।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির সভাপতি ইফতেখার উদ্দীন নওশাদ বলেন, ‘ আমার ওপর হামলার ঘটনায় তারা দুঃখপ্রকাশ করেছেন। চলচ্চিত্রের উন্নয়নের জন্যই নিজেদের মধ্যে বিরোধ রাখতে চাইনা। এখন সবাই মিলেমিশে চলচ্চিত্রের উন্নয়নে কাজ করতে চাই। ’

গত ২১ জুন চলচ্চিত্র পরিবারের আন্দোলনে সেন্সর বোর্ডের সামনে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির সভাপতি ও সেন্সর বোর্ডের সদস্য ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ হামলার শিকার হন । সম্প্রতি এ হামলার প্রতিবাদে চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভায় ‘মিশা সওদাগর, রিয়াজ, জায়েদ খান, মুশফিকুর রহমান গুলজার, বদিউল আলম খোকন এবং খোরশেদ আলম খসরুর কোনো ছবি না চালানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।