আন্তর্জাতিক

গ্রেনফেল টাওয়ারের অগ্নিকান্ডের ঘটনায় পাঁচ দিন পরে সিরিয়ার এক পরিবারকে জীবিত উদ্ধার

পুলিশ আজ নিশ্চিত করেছে যে লন্ডনের গ্রেনফেল টাওয়ারের অগ্নিকান্ডের ঘটনায় নিখোঁজদের মধ্যে পাঁচজনকে নিরাপদে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। সিরিয়ান পরিবারের এ পাঁচ সদস্যকে ঘটনার এতদিন পরে নিরাপদে জীবিত উদ্ধারকে অলৌকিক বলছেন সংশ্লিষ্ট সকলে।

এখন পর্যন্ত এ অগ্নিকান্ডের ঘটনায় ৭৯ জন নিখোঁজ রয়েছে।  ধারণা করা হচ্ছে টাওয়ারের ভিতরে আটকে পড়ে তাদের সকলেরই মৃত্যু হয়েছে।

কুদাইরের পরিবার নামে পরিচিত উদ্ধারকৃত পরিবারের মধ্যে তিনজন তরুণী সন্তানও রয়েছে। পরিবারটি উন্নত জীবনের আশায় যুদ্ধাক্রান্ত সিরিয়া থেকে ব্রিটেনে পালিয়ে এসেছিলেন। পরিবারটি টাওয়ারের প্রায় মধ্যভাগের উপরের অংশে এক ফ্ল্যাটে থাকতেন। তাদের ইংরেজি ভাষা শিক্ষিকা ক্যাথেরিন লিন্ডসে পরিবারটির নিখোঁজের ব্যাপারে জানিয়েছিলেন।

এ ঘটনার তদন্ত কমিটির প্রধান মেট্রোপলিটন পুলিশ কমান্ডার স্টুয়ার্ট কন্ডি আজ সকালে এ জীবিত উদ্ধারের ঘোষণা দেন। কিন্তু উদ্ধারকৃত পরিবারের পরিচয় প্রকাশ করেননি তিনি।

ইন্ডিপেন্ডেন্ট পত্রিকা এ পরিবারের এক কন্যা রাওয়ানের সাথে ফেসবুকের মাধ্যমে কথা বলে। রাওয়ান নিশ্চিত করেছেন যে, তারা অক্ষত অবস্থায় রক্ষা পেয়েছেন যদিও তাদের সকল অবলম্বন বিনষ্ট হয়ে গিয়েছে।

তিনি আরো বলেন, তারা এখন সমাজের মানুষের কাছ থেকে নানা ধরণের সহযোগিতা পাচ্ছেন, যা খুবই দারুন।

গত বুধবার রাত একটার দিকে ল্যাটিমার রোডে অবস্থিত গ্রিনফেল টাওয়ারে দেশটির ইতিহাসে ভয়াবহ এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। এ দিকে এ ঘটনায় নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে সারাদেশে এক মিনিট নিরবতা পালন করে দেশটির সর্বসাধারণ। সূত্র: ডেইলি মেইল