বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি স্বাস্থ্য

গলা ব্যথার ঘরোয়া প্রতিকার

1ঠান্ডার প্রাথমিক লক্ষণ হচ্ছে গলা ব্যথা। এছাড়া ভোকাল কর্ডের সমস্যার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ায় গলা ব্যথা হতে পারে। গলা ব্যথা হলেই বেশির ভাগ মানুষ ডাক্তারের কাছে ছুটে যান। কিন্তু ঘরে বসেই এর চিকিৎসা করা যায়।

 

লবন পানি দিয়ে কুলকুচি: হালকা গরম পানিতে লবন মিশিয়ে কুলকুচি করলে মিউকাস পাতলা হয় এবং সংক্রমণকারী জীবাণু বের হয়ে যায়। এক কাপ হালকা গরম পানি নিন, এতে আধা চামচ লবন মিসিয়ে নিন। ৩ ঘণ্টা পরপর কুলকুচি করুন। গলা ব্যথা কমে যাবে।

মেন্থল: নিঃশ্বাসের সুগন্ধ সৃষ্টির জন্য মেন্থল সুপরিচিত। এতে থাকা পিপারমেন্ট অয়েল স্প্রে গলা ব্যথা কমাতে সাহায্য করে। পিপারমেন্টের অ্যান্টিইনফ্লামেটরী, অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল এবং অ্যান্টিভাইরাল উপাদান গলা ফোলা কমতে সাহায্য করে।

বেকিং সোডা: হালকা গরম পানিতে লবন ও বেকিং সোডা মিশিয়ে নিন। এরপর এই মিশ্রণ দিয়ে কুলকুচি করুন। আরাম পাবেন।

মধু: গলা ব্যথা কমার জন্য চায়ের সাথে চিনির বদলে মধু মিশিয়ে খেতে পারেন অথবা শুধু মধু খেতে পারেন। ওষুধের চেয়ে রাতের বেলা মধু খেলে তা অত্যন্ত কার্যকরী। মুখের ভেতরের ক্ষতের জন্য মধু খুব উপকারী।

পানি: অনেক সময় গলা ব্যথার সাথে জ্বরও হতে পারে জ্বর হলে শরীরে পানিশূন্যতা দেখা দেয়। এজন্য বেশি করে পানি পান করুন আর তরল খাবার বেশি করে খান।

ভিডিওঃ আমার একসঙ্গে চার-পাঁচ জন পুরুষ দরকার : শ্রীলেখা

Add Comment

Click here to post a comment