আন্তর্জাতিক

কোচিং সেন্টারে মাসের পর মাস ছাত্রীর সঙ্গে শিক্ষকের যৌন সম্পর্ক স্থাপন,অতঃপর..

গুরু-শিষ্য সম্পর্কে যে এমন দিনও আসতে পারে তা যেন চিন্তা-ভাবনার ঊর্ধ্বে। কিন্তু ভারতের বিহারের এক কোচিং সেন্টারে ঘটেছে এমনই এক লজ্জাজনক ঘটনা।
দলসিংহরায় জায়জপট্টি সিগারেট ফ্যাক্টরি রোডের একটি কোচিং-এর শিক্ষক সুমন কুমার তার নবম শ্রেণির এক ছাত্রীর সঙ্গে মাসের পর মাস যৌন সম্পর্ক স্থাপন করতে থাকে।

জানা গেছে, ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে মাসের পর মাস শারীরিক সম্পর্ক করে ওই শিক্ষক। এক পর্যায়ে ওই ছাত্রী গর্ভবতী হয়ে গেলে সমগ্র বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে। নির্যাতিতার পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ সুমন কুমারকে গ্রেফতার করে। এরপর চিকিৎসার জন্য ছাত্রীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়, অভিযোগের ভিত্তিতেই ওই শিক্ষককে পুলিশি হেফাজতে নেওয়া হয়। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে। তবে অভিযুক্ত নিজেকে নির্দোষ বলেই জানিয়েছে। তবে নির্যাতিতা যে তিন মাস ধরে ওই কোচিং সেন্টারে পড়ছে তা স্বীকার করেছে অভিযুক্ত।