জাতীয় শিল্প ও সাহিত্য

‘কে সেই কবি?’

এক কবির কথা আমি বলছি।
যার প্রতিটি শব্দচয়ন কবিতা,
যার ভাবনায় কবিতা,
যার স্বপ্নে কবিতা,
বক্তৃতার, প্রতিটি চয়ন যার কবিতা।
আমি এক কবির কথা বলছি।
যার কথা,
মন্ত্রমুগ্ধের মত শুনেছি।
যার বাক্যে,
আবেগ তাড়িত হয়েছি।
যার বদান্যতায়,
আপ্লুত হয়েছি।
যার প্রাণের উচ্ছলতায়,
অনুপ্রাণিত হয়েছি।

আমি এক কবির কথা বলছি।
জানেন?
কবিরা কিন্তু নির্লোভী হয়।
ভাল মন না থাকলে, কবি হওয়া যায় না।
কবিরা আবেগী হয়,
ভালবাসতে না জানলে, কবি হওয়া যায় না।
কবিরা সাম্যের হয়,
বিভেদ তাড়িত হয়ে, কবি হওয়া যায় না।
আমি এক কবির কথা বলছি।
অফুরন্ত সুযোগ যে পায়ে ঠেলতে পারে, সে ই কবি।
কলুষ যাকে স্পর্শ করতে পারে না, সে ই কবি।
অনাথ শিশুকে নিয়ে যে রাস্তার পাশে খেতে পারে, সে ই কবি।
এক কবির কথা আমি বলছি।
ভালবেসে যে কাঁদতে পারে, সে ই কবি।
বিশ্বাস ভঙ্গ যে করে না, সে ই কবি।
যার প্রতি আস্থা রাখা যায় নির্দ্বিধায়, সে ই কবি।
আমি এক কবির কথা বলছি।
ক্ষমতার শিখরে থেকেও যে বিনয়ী, সে ই কবি।
যার হৃদয়ে ক্ষরণ ঘটায় জাতিভেদ, সে ই কবি।
সত্য চয়নে যে অকুতোভয়, সে ই তো কবি।
আমি এক সাদামনের মানুষের কথা বলছি।
যিনি স্বপ্ন দেখেন একান্নবর্তী পৃথিবীর।
এক কবির কথা আমি বলছি।
(কবি মাহাবুবুল হক শাকিলকে উৎসর্গ করে লেখা) দীপক কুমার বণিক দিপুর ফেসবুক থেকে নেয়া…

1

Add Comment

Click here to post a comment