খেলা-ধুলা

কুকের পর কে হচ্ছেন ইংল্যান্ডের অধিনায়ক!

ইংল্যান্ডের অধিনায়ক হবার জন্য জো রুট প্রস্তুত বলে মনে করেন দলের বর্তমান টেস্ট দলপতি অ্যালিষ্টার কুক। তবে ইংল্যান্ডের অধিনায়কত্ব ছাড়ার সিদ্বান্ত এখনও তিনি নেননি বলেও জানান কুক। মুম্বাই টেস্ট হারের পর কুক বলেন, ‘আমার মনে হয় ইংল্যান্ডের অধিনায়ক হবার জন্য প্রস্তুত রুট। সে অধিনায়ক হবার যোগ্যতা রাখে। তবে অধিনায়কের দায়িত্ব থেকে সরে যাবার কোনো চিন্তা-ভাবনা আপাতত আমার নেই।’
গেল সিরিজে ঢাকা টেস্টে বাংলাদেশের কাছে শোচনীয় হারের পরই কুকের অধিনায়কত্ব নিয়ে প্রশ্ন উঠে। ভারতের কাছে এক ম্যাচ বাকী রেখেই টেস্ট সিরিজ হেরে যাওয়ায় সেই প্রশ্ন আরও ভয়াবহ আকার ধারন করেছে। তবে মুম্বাই টেস্ট হারের আগ থেকেই কুকের অধিনায়কত্বের পাশাপাশি তার ব্যাটিং পারফরমেন্স নিয়ে সমালোচনা ছিল পুরো ইংল্যান্ড জুড়ে।
তবে এসব নিয়ে এতোদিন মুখ খুলেননি কুক। অবশেষে মুম্বাই টেস্ট হারের পর অধিনায়কত্ব নিয়ে মুখ খুললেন কুক। অধিনায়কত্ব ছাড়ার ইঙ্গিত না দিলেও, ইংল্যান্ডের ভবিষ্যত দলপতির সর্ম্পকে কথা বলেছেন কুক, ‘ব্যাটসম্যান হিসেবে নিজের যোগ্যতা আগেই দেখিয়েছে রুট। অধিনায়ক হিসেবেও সে যোগ্য হবে বলে আমি মনে করি। এখন ইংল্যান্ডের অধিনায়ক হবার জন্য প্রস্তুত রুট। তার মধ্যে সেই যোগ্যতা ফুটে উঠেছে। তবে অধিনায়কের দায়িত্ব থেকে সড়ে যাবার কোন চিন্তা-ভাবনা আপাতত আমার নেই। নতুন বছর নিয়ে আমি নিজের পরিকল্পনা সাজাচ্ছি। আগামী বছর আমার ও আমাদের জন্য অনেক বড় চ্যালেঞ্জের।’
রুটকে অধিনায়ক হবার সার্টিফিকেট দিয়ে তার প্রশংসাই করেছেন কুক। ড্রেসিংরুম বা দলের মধ্যে রুটের সর্ম্পকে কুক বলেন, ‘দলের সবার সাথে তার সর্ম্পক খুবই ভালো। ড্রেসিং রুমের পরিবেশ সবসময় উচ্ছসিত করে রাখে রুট। দলকে আগলে রাখার অসম্ভব ক্ষমতা তার মধ্যে আছে। অধিনায়ক হিসেবে সে অভিজ্ঞ নয়। কিন্তু এই নয় যে, সে এই দায়িত্ব পালন করতে পারবে না। অধিনায়ক হবার সকল গুনাবলি রুটের মধ্যে আছে।’
ইংল্যান্ডের অধিনাকত্ব করাটা অনেক সম্মানের এবং অনেক বড় দায়িত্ব বলে মনে করেন কুক। ভারতের কাছে সিরিজ হারলেও, চেন্নাই টেস্টে ঘুড়ে দাড়ানোর ইঙ্গিত এই ইংলিশ অধিনায়কের, ‘ইংল্যান্ডের মত দলের অধিনায়ক হওয়াটা সম্মানের। তাই অনেক বড় বড় দায়িত্বও থাকে। এমন দলের নেতা যেহেতু আমি, তাই জয় বা হারের দায়টা আমার কাঁধেই চলে আসে। তবে এই দায়িত্ব পালন করতে পেরে আমি বেশ খুশি। ভবিষ্যতের এমন গুরু দায়িত্ব ভালোভাবেই পালন করবো। চেন্নাই টেস্টে ঘুড়ে দাড়াঁবো আমরা। ভালোভাবে সিরিজ শেষ করতে হবে। দলের মধ্যে আত্মবিশ্বাস ফিরিয়ে আনাটা এখন বেশ কঠিন। তবে এই কাজটির প্রতিই আমরা বেশি মনোযোগী হবো।’
মুম্বাইয়ে টেস্টের পঞ্চম দিনের প্রথম ৩১ মিনিটেই ইংল্যান্ডের হার নিশ্চিত করে ফেলে ভারত। কিন্তু ইংল্যান্ডের শেষ উইকেট পতনের কিছুক্ষণ আগে তর্কাতর্কি হয় জেমস এন্ডারসন ও কোহলির মধ্যে। এতে পরিবেশ কিছুটা উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। এ ব্যাপারে কুককে জিজ্ঞাসা করা হলে কোহলির দিকেই আঙ্গুল তুলেন ইংল্যান্ড দলপতি, ‘এটা স্পষ্ট। কোহলি ইচ্ছা করেই এন্ডারসনকে উত্যক্ত করেছে। কারন গতকালই কোহলির ব্যাটিং পারফরমেন্স নিয়ে কথা বলেছে এন্ডারসন। তাতে ক্ষিপ্ত হয়েছেন কোহলি। যদি আপনি কোহলিকে জিজ্ঞাসা করেন, সেও একই কথা বলবে। তবে এমন আচরণের কোন প্রয়োজন ছিলো না।’
চলতি বছর চারটি টেস্ট সিরিজ খেলেছে ইংল্যান্ড। এরমধ্যে শ্রীলংকার বিপক্ষে জয় ছাড়া কোন অর্জনই নেই কুকের নেতৃত্বাধীন দলটির। দেশের মাটিতে পাকিস্তানের সাথে চার ম্যাচের সিরিজে এগিয়ে থেকেও ২-২ ব্যবধানে ড্র করে ইংলিশরা। এরপর বাংলাদেশের মাটিতেও হতাশা সঙ্গী হয় তাদের। চট্টগ্রাম টেস্ট ২২ রানে জিতলেও, ঢাকা টেস্টে ১০৮ রানের হারে লজ্জার ঢেকুঁর তুলে কুক-স্টোকসরা। এতে দুই ম্যাচের সিরিজ ১-১ সমতায় শেষ হয়। আর ভারতের মাটিতে ইতোমধ্যে সিরিজ হেরে বসে আছে ইংল্যান্ড। তবে আগামী ১৬ ডিসেম্বর থেকে চেন্নাইয়ে শুরু হওয়া টেস্ট থেকে ইতিবাচক ফলাফল, অধিনায়কত্ব বাঁচানোর উদাহরণ হলেও হতে পারে কুকের জন্য।

ভিডিও:জন্টি রোডসকে কেন পৃথিবীর সেরা ফিল্ডার বলা হয় দেখুন (ভিডিও)

Add Comment

Click here to post a comment