Advertisements
অন্যরকম খবর

কিশোরের কান থেকে এসব কী বের হলো?

কানে ভীষণ ব্যথা ছিল ছেলেটার। আর সহ্য করতে না পেরে ডাক্তারের কাছে গিয়েছিল। টর্চ দিয়ে কানের ভিতরে পরীক্ষা করে দেখে অবাক ডাক্তার। কিশোরের কানের ভেতরে বাসা বেঁধেছে একগাদা পোকা। প্রত্যেকটি দিব্যি ঘুরে বেড়াচ্ছে সেখানে। আর এর জন্যই যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছে কিশোরটি। পোকাগুলি না বের করলে এভাবেই যন্ত্রণা পেতে হবে কিশোরকে। তাই তৎক্ষণাৎ পোকাগুলি বাইরে বের করার সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা। কান পরিষ্কার করার যন্ত্র দিয়ে একটি একটি করে পোকা বের করতে শুরু করেন তিনি। ভিডিওতে তুলে রাখা হয় এই দৃশ্য।

ভিডিওটি আপলোড হওয়া মাত্রই সাড়া পড়ে যায় নেটদুনিয়ায়। ইতিমধ্যেই তা পেয়ে গিয়েছে ভাইরাল তকমা। জানা গিয়েছে, ঘটনাটি ঘটেছে কাজাখস্তানের একটি স্থানের। সেখানেই বাস করে ওই কিশোর। কানের ব্যথায় অতিষ্ঠ হয়ে স্থানীয় ডাক্তারের কাছে যায় সে। কিন্তু কেমন করে কানের ভিতরে ছিল এই ধূসর রংয়ের পোকাগুলি? প্রাথমিকভাবে ডাক্তাররা মনে করছেন, মাছি জাতীয় কোনও প্রাণী কিশোরের কানে ডিম পেড়েছিল হয়তো। সেখান থেকেই লার্ভার মতো এই পোকাগুলির জন্ম হয়েছে। শরীরের ভিতর থেকে প্রোটিন শুষে নিয়েই সেগুলি এতদিন বেঁচে ছিল।

অবশ্য মানুষের কানের ভিতরে এভাবে পোকামাকড় ঢুকে যাওয়ার ঘটনা নতুন নয়। কিছুদিন আগেই এমন ঘটনার সাক্ষী হয়েছিলেন বেঙ্গালুরুর বাসিন্দা লক্ষ্মী। বারান্দায় ঘুমোতে গিয়ে তাঁর কানের ভিতরে প্রবেশ করেছিল একটি আস্ত মাকড়সা। সেক্ষেত্রে অবশ্য লক্ষ্মীর কানের ভিতরে ওষুধ প্রয়োগ করায় নিজে থেকেই বেরিয়ে এসেছিল মাকড়সাটি। কিন্তু কাজাখস্তানের কিশোরের পরিস্থিতি আরও গুরুতর ছিল। কারণ তাঁর কানের ভিতরের পোকাগুলি ছিল খুবই ছোট। তাই খুব সাবধানে একটি একটি করে সেগুলি বের করতে হয়েছে ডাক্তারদের।

ভিডিও ক্লিপটি দেখতে ক্লিক করুন 

Advertisements





সর্বশেষ খবর