আন্তর্জাতিক

ওবামাকে লেখা ৬ বছরের শিশুর চিঠিতে কাঁদবেন আপনিও (ভিডিও)

image-5245-1479822697সিরিয়ায় অ্যাম্বুলেন্সে বসা সেই ছেলেটির কথা কি মনে আছে? প্লিজ, আপনি কি তাকে আনতে যাবেন এবং আমার বাড়িতে আনবেন? আমরা রাস্তায় আপনাদের জন্য পতাকা, ফুল ও বেলুন নিয়ে অপেক্ষা করবো। আমরা তাকে একটি পরিবার দেব, সে হবে আমার ভাই।

৬ বছরের আমেরিকান শিশু অ্যালেক্স প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাকে গেলো আগস্টে যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়ার আলেপ্পো শহরে বিমান হামলায় বিধ্বস্ত একটি ভবন থেকে উদ্ধার হওয়া রক্ত ও ধুলোমাখা অবস্থায় অ্যাম্বুলেন্সে বসে থাকা ওমরান দাকনিশের ব্যাপারে লেখা চিঠির শুরুটা করেছে এভাবেই।

ব্যথায় কান্নাকাটি না করে নিস্পৃহ দৃষ্টিতে তাকিয়ে ছিল সে। এ ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে বিশ্ববাসীকে কাঁদায়। ছবিটি দেখে মর্মাহত লোকজন ক্ষোভে ফেটে পড়েন।

চিঠিতে অ্যালেক্স আরো লিখেছে, আমার ছোট বোন ক্যাথরিন, তার জন্য প্রজাপতি আর জোনাকি খুঁজে আনবে। স্কুলে ওমর নামে আমার এক সিরীয় বন্ধু আছে। আমি তাকে ওমরের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেব। আমরা একসঙ্গে খেলবো। আমার জন্মদিনের অনুষ্ঠানে তাকে দাওয়াত দেব। সে আমাদের অন্য একটি ভাষা শেখাবে। আমরাও তাকে ইংরেজি শেখাবো। ঠিক আমার জাপানের বন্ধু অটোর মতো।

অ্যালেক্স নিজেকে ওমরানের ভাই দাবি করে লেখে, প্লিজ, তাকে বলবেন, অ্যালেক্স তার ভাই হবে, যে ঠিক তার মতোই খুব দয়ালু। সে তার সঙ্গে কোনো খেলনা আনতে পারবে না, কারণ তার কোনো খেলনা নেই। ক্যাথরিন তার বড় সাদা বানি পুতুল তার সঙ্গে ভাগ করে নেবে। আমি আমার বাইক তার সঙ্গে ভাগ করে নেব। আমি তাকে বাইক চালানো শিখিয়ে দেব। আমি তাকে অংকের যোগ-বিয়োগ শেখাব। আমরা আপনাদের আসার অপেক্ষায় থাকবো।

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনের শরণার্থী সঙ্কট নিয়ে ভাষণ দেবার সময় অ্যালেক্সের এই চিঠির কথা তুলে ধরে বারাক ওবামা বলেন, কথাগুলো ৬ বছরের একটি শিশুর; সে আমাদের অনেক কিছুই শিখিয়েছে। অল্প বয়সের এই শিশুটি যা দেখালো সেটিই মানবতা। অ্যালেক্স মানববিদ্বেষী বা সন্দেহপ্রবণ হতে বা অন্যদের থেকে ভয়ার্ত হতে শেখেনি। আমরা সবাই অ্যালেক্সের কাছ থেকে শিখতে পারি।

ওবামার ভাষণ প্রচারের পর অ্যালেক্সের লেখা চিঠিটি তাকে দিয়ে পড়িয়ে ভিডিওচিত্র ধারণ করে তা হোয়াইট হাউসের ফেসবুক ও টুইটারে পেজে পোস্ট করা হয়। ভিডিওটি প্রচারের পাশাপাশি হোয়াইট হাউস অ্যালেক্সের হাতে লেখা চিঠিও প্রকাশ করেছে

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

Add Comment

Click here to post a comment





সর্বশেষ খবর