বিনোদন

এ কেমন বিজ্ঞাপন? যেখানে অফার করা হয় সাঁওতাল রমণীর যৌবন!

11একটা বিজ্ঞাপন। যেখানে প্রকাশ্যে সাঁওতাল রমণীদের শরীর অফার করা হচ্ছে। পর্যটকদের জন্য। বলা হচ্ছে পুরুলিয়ায় বেড়াতে আসুন। পাবেন সাঁওতাল রমণীর উদ্দাম যৌবনের ছোঁয়া। আমরা যখন নিজেদের সভ্য সমাজের নাগরিক বলি, বলতে পছন্দ করি। তখন এই বিজ্ঞাপন সেই সভ্যতার গোড়ায় আঘাত করে না? উঠতে শুরু করেছে প্রশ্ন। শুরু হয়েছে নিন্দার ঝড়।

কলকাতার একটি নামকরা দৈনিকে এই বিজ্ঞাপনটি প্রকাশিত হয়েছে। বিজ্ঞাপনদাতা পুরুলিয়ার একটি পর্যটন সংস্থা। বিজ্ঞাপনের ভাষা এ রকম, ‘শীতে পুরুলিয়া আসুন, চার রাত্রি পাঁচ দিনের প্যাকেজ- সত্যজিৎ রায়ের জয়চণ্ডী পাহাড়, গড় পঞ্চকোট রাজবাড়ির গা ছমছমে ইতিহাস ঘেরা অলিন্দ, অযোধ্যা পাহাড়ে জলপ্রপাত-জলবিদ্যুৎ কেন্দ্র, বড়ন্তির সূর্যাস্ত, সঙ্গে ছৌ-নাচ এবং সাঁওতাল রমণীর উদ্দাম যৌবনের ছোঁয়া…’

খরচ কত তার পাশাপাশি দেওয়া হয়েছে বিজ্ঞাপনদাতা সংস্থার নাম ও ফোন নম্বর।  বিতর্ক শুরু হয়েছে এই বিজ্ঞাপনকে ঘিরেই। রাজ্য সরকার যেখানে রাজ্যের পর্যটনকে বিশ্বমানের করে তুলতে চাইছে, রাজ্যটির মুখ্যমন্ত্রী, সেখানে পুরুলিয়ায় বেড়াতে গেলে সাঁওতাল রমণীকে উপভোগ করার অফার দেওয়া হচ্ছে! তাও প্রকাশ্যে-বিজ্ঞাপনে!

এ ধরনের বিজ্ঞাপন কেন? যোগাযোগ করি, ওই বিজ্ঞাপনদাতা সংস্থার সঙ্গে। সুমিত বিশ্বাস নামে জনৈক ব্যক্তি ফোন ধরেন। সব শুনে বলেন, বিজ্ঞাপনটি নিয়ে একটা বিভ্রান্তি হয়েছে। অনেকে আপত্তি জানাচ্ছেন। প্যাকেজ ট্যুরে আমরা ক্যাম্প ফায়ারের মাধ্যমে যে সাঁওতাল নৃত্য দেখাই- আসলে সেটার কথাই বলা হয়েছিল। প্লিজ, ওটা নিয়ে ভুল বুঝবেন না।

তাঁর আরও বক্তব্য, এটা ভুল হয়ে গেছে। পর্যটক টানতে এবং যাতে চটজলদি বুকিং পাওয়া যায়, তার জন্য লেখাটা লেখা হয়েছিল। ভুল হয়ে গেছে। লেখাটা সংশোধন করে দেব আমরা।

তবে, সংস্থার পক্ষ থেকে ভুল স্বীকার করা হলেও, বিষয়টি ভালো চোখে দেখছেন না বিদ্বজনরা। রাজ্য নারী কমিশনের চেয়ারপারসন সুনন্দা মুখোপাধ্যায়কে বিষয়টি আমরাই জানাই। সব শুনে তিনি বলেন, এটা ভয়ংকর কথা। খুব খারাপভাবে নিচ্ছি। আমি ব্যবস্থা নেব। পরে আমার সাথে যোগাযোগ করুন।

সূত্র : ওয়েবসাইট

ভিডিওঃ ফুটবলে গোল করার পর ১০ অদ্ভুত উদযাপন; ভিডিওতে দেখুন

Add Comment

Click here to post a comment