আন্তর্জাতিক

এয়ার ইন্ডিয়ার অভ্যন্তরীণ ফ্লাইটে শুধু ‘নিরামিষ’

ভারতীয় রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন বেসামরিক বিমান পরিবহন সংস্থা এয়ার ইন্ডিয়া খরচ কমানোর স্বার্থে অভ্যন্তরীণ ফ্লাইটে শুধুমাত্র নিরামিষ খাবার পরিবেশন করবে। তবে সমালোচকরা একে বৈষম্যমূলক নীতি বলে উল্লেখ করেছে এবং এতে খুব কমই খরচ কমবে ঋণে জর্জরিত প্রতিষ্ঠানটির।
ভারতে খাদ্যভ্যাস নিয়ে বিভিন্ন সময় বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে। কারণটা সাধারণত ধর্মীয়, কারণ হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের মধ্যে নিরামিষভোজীর সংখ্যা বেশি ও মুসলিমরা মাংস পছন্দ করে। তবে এয়ার ইন্ডিয়া পরিচালক মনে করেন না এটা নিয়ে বিতর্কের কোনো কারণ আছে। এয়ার ইন্ডিয়ার ব্যবস্থাপনা পরিচালক অশ্বিনী লোহানি নিজের ফেসবুক পেজ থেকে দেয়া পোস্টে বলেন, এই পদক্ষেপে অপচয় ও খরচ কমবে ও সেবার উন্নতি হবে। এবং কোনো ধরণের বিভ্রান্তি সৃষ্টি হবে না। তিনি যোগ করেন, আভ্যন্তরীণ বিমানে খাবারটা খুব একটা গুরুত্বপুর্ণ বিষয় নয়, আর এটা নিয়ে ভাবারও খুব বেশি কিছু নেই।
তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় এয়ার ইন্ডিয়ার পদক্ষেপের কড়া সমালোচনা হচ্ছে। মধু মেনন নামের একজন জনপ্রিয় শেফ এই সিদ্ধান্তে বিজেপির জাতীয়তাবাদী রাজনীতির ছোয়া দেখছেন। তিনি টুইটারে লিখেছেন, এয়ার ইন্ডিয়া নন ভেজ খাবার সার্ভ করবে না। এরপরে ফ্লাইট অ্যাটেনডেন্টরা শুধু হিন্দিতে কথা বলবে। এরপরের নিয়ম করা হবে ফ্লাইটের আগে জাতীয় সংগীত বাজানো হবে এবং সবাইকে উঠে দাঁড়াতে হবে।
সম্প্রতি গরুর মাংস সংশ্লিষ্ট কারণে বেশ কয়েকজন মুসলিমকে গণপিটুনিতে হত্যা করা হয়েছে। মঙ্গলবার ভারতের সুপ্রিমকোর্ট দেশজুড়ে মাংসের জন্য গরু বিক্রি সারা দেশে নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্তের বিষয়ে রায় দেবে। বিবিসি।