খেলা-ধুলা

এমন বিদায় কি চেয়েছিলেন ট্রাকের রাজা বোল্ট?

এক সময় এমন ছিল যে উসাইন বোল্ট ট্র্যাকে নামবেন আর সঙ্গে যেই থাকুক সবার আগে দৌড় শেষ করবেন তিনি। একের পর এক সাফল্যে নিজেকে কিংবদন্তি রাজ্যে নিয়ে গেছেন জ্যামাইকান এ বজ্রবিদ্যুৎ। কিন্তু ক্যারিয়ারের শেষ ইভেন্টে ট্র্যাকে নেমে ইনজুরি নিয়ে খুড়িয়ে খুড়িয়ে আহত বাঘের মতো ট্র্যাক ছাড়তে হয়েছে অলিম্পিকে ৮টি গোল্ড মেডেল জয়ী এ অ্যাথলেটকে।

লন্ডনে বিশ্ব অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপে ১০০ মিটারে ব্যর্থতার পর ৪*১০০ মিটার রিলেতে সোনা জিতে শেষ করতে চেয়েছিলেন বোল্ট। কিন্তু ভাগ্যের কি নির্মম পরিহাস। ক্যারিয়ারের শেষ ইভেন্টে দৌড়ই শেষ করতে পারলেন না বোল্ট। তাই জ্যামাইকান এ গতি দানবের বিদায়টি হলো চরম হতাশার।

শনিবার রাতে ৪*১০০ মিটার রিলেতে ৩৭.৪৭ সেকেন্ডে সবার আগে দৌড় শেষ করে গ্রেট ব্রিটেন। ৩৭.৫২ সেকেন্ড নিয়ে রূপা জিতেছে যুক্তরাষ্ট্র। আর ৩৮.০৮ সেকেন্ড জাপান জিতেছে ব্রোঞ্জ।

প্রতিযোগিদের সঙ্গে শুরুর দিকে ভালোই লড়ছিলেন বোল্ট। কিন্তু শেষ ল্যাপে ফিনিশিং লাইন থেকে প্রায় ৫০ মিটার দূরে থাকতেই চোট পান বোল্ট। ইয়োহান ব্লেকের কাছ থেকে ব্যাটন নিয়ে দৌড়ের গতি বাড়াতেই বিপদে পড়েন তিনি। হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট পেয়ে লুটিয়ে পড়েন ট্র্যাকেই। জ্যামাইকান এ তারকার চোটের সুযোগে ব্রিটেনের হয়ে জয় নিশ্চিত করেন মিচেল ব্লেক।

এর আগে ২০১১ সালে ১০০ মিটারে ডিসকোয়ালিফাইড হয়েছিলেন বোল্ট। ওই একটি কালো অধ্যায় ছাড়া ২০০৯ সাল থেকে এ আসর পর্যন্ত ১০০, ২০০ এবং ৪*১০০ মিটারে সোনা জিতেছিলেন তিনি।

লন্ডনে বিশ্ব অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপে কয়েকদিন আগে ১০০ মিটার স্প্রিন্টে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী জাস্টিন গ্যাটলিনের বিপক্ষে হেরে তৃতীয় হয়েছিলেন বোল্ট। এবার ৪*১০০ মিটার রিলেতে আরও বড় হতাশাকে সঙ্গী করে বিদায় নিলেন ১০০ ও ২০০ মিটারে রেকর্ড সৃষ্টিকারী জ্যামাইকান এ গতিদানব।

Advertisements