রাজনীতি

এত নোংরা কথা আমাদের নেত্রী শেখাননি

বিএনপির প্রার্থী ভাড়াটিয়া আইভির এমন মন্তব্যের সমালোচনা করে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নাল আবদিন ফারুক বলেছেন যাকে এখন নৌকাটা হাতে তুল দিয়েছে আওয়ামী লীগ, প্রকৃতপক্ষে উনিই ভাড়াটিয়া, উনি নমিনেশন পাননি। ওনাকে প্রধানমন্ত্রী নমিনেশন দিয়েছেন। আওয়ামী লীগ ওনাকে নমিনেশন দেয়নি।

আজ সোমবার সকালে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন-নাসিক নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থীর পক্ষে ১নং ওয়ার্ডে গণসংযোগকালে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।

গতকাল রোববার নাসিক নির্বাচনে বিএনপিপ্রার্থী অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন ’ভাড়াটিয়া প্রার্থী’ এমন মন্তব্য করেছিলেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভী।

জয়নাল আবদিন ফারুক বলেন, এত নোংরা কথার ব্যবহার আমাদের নেত্রী আমাদের শেখাননি। আমি এ ধরনের কথার তীব্র প্রতিবাদ জানাই।

একই বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন বলেন, বিএনপি আমাকে নমিনেশন দিয়েছে নারায়ণগঞ্জের ২৭টি ওয়ার্ডের তৃণমূলের মতামতের ভিত্তিতে। নারায়ণগঞ্জের আওয়ামী লীগ ২৭টি ওয়ার্ড থেকে তিনজন প্রার্থীকে মনোনীত করে কেন্দ্রে পাঠিয়েছিল। ওই তালিকায় আইভীর নাম ছিল না। তৃণমূল আইভীকে সমর্থন দেয়নি। কেন্দ্র আইভীকে নারায়ণগঞ্জে নৌকার প্রার্থী হিসেবে চাপিয়ে দিয়েছে। সুতারাং আমি মনে করি, নারায়ণগঞ্জের আওয়ামী লীগ এবং বিএনপি একাকার হয়েছে ধানের শীষের প্রার্থীকে বিজয়ী করার জন্য। সুষ্ঠু নির্বাচন হলে ৬০ থেকে ৭০ ভাগ ভোট ধানের শীষ প্রতীক পাবে।

তিনি বলেন, ২০০৩ সালে মেয়র নির্বাচনের ১৫ দিন আগে আইভী নিউজিল্যান্ড থেকে এসে নির্বাচন করেছেন। তার স্বামী সন্তান এখনো নিউজিল্যান্ড থাকেন। উনি একা নারায়ণগঞ্জ থাকেন।

সাখাওয়াত হোসেন খান আরো বলেন, আইভী এখন গণসংযোগ করে বিভিন্ন উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন। তিনি ১৩ বছর মেয়র ছিলেন। তিনি যদি সঠিকভাবে উন্নয়ন করতেন, তাহলে এসব উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি এখন কেন দিচ্ছেন?

সাখাওয়াত বলেন, আজকে আইভীর সুরে সিইসি কথা বলছেন। আমরা সব প্রার্থী সেনাবাহিনী চেয়েছি। আইভী সেনাবাহিনী চান না। এর আগের নির্বাচনে আইভী সেনাবাহিনী চেয়েছিলেন। আজকে তিনি আওয়ামী লীগের প্রার্থী হওয়ায় সেনাবাহিনী চান না। সিইসিও সেনাবাহিনী দেয়ার প্রয়োজন নেই বলে জানিয়েছেন।

সাখাওয়াত বলেন, সিইসি যদি সেনাবাহিনী না দেয়, তাহলে নারায়ণগঞ্জের জনগণ প্রত্যেকে সেনাবাহিনী হয়ে আগামী ২২ তারিখ ভোট কেন্দ্র পাহারা দিবে। তারা ধানের শীষকে ভোট দিয়ে বিপুল ভোটে বিজয়ী করবে।

বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতারা অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খানকে সাথে নিয়ে আজ সিদ্ধিরগঞ্জে সকাল ১০টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত প্রচারণা চালান। এসময় তারা লিফলেট বিতরণ করে ধানের শীষের পক্ষে ভোট চান।

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নাল আবদীন ফারুক, নির্বাহী কমিটির সদস্য তাবিথ আউয়াল ও মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা বিএনপির যুগ্মআহ্বায়ক মনিরুল ইসলাম রবি, থানা বিএনপির সাবেক সভাপতি আঃ হাই রাজু, সাবেক সাধারণ সম্পাদক এম,এ হালিম জুয়েল, ১নং ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ফজলুর রহমান খান, সাংগঠনিক সম্পাদক গাজী মনির হোসেনসহ জাতীয় ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ এবং কর্মী-সমর্থকরা এই গণসংযোগে অংশ নেন।

Advertisements

Add Comment

Click here to post a comment