Advertisements
খেলা-ধুলা

‘এটা কোনো প্রশ্ন হলো? কী হচ্ছে এসব!’; সাংবাদিককে কোহলি

ফাইনালে হারার পর যেকোনো ভারত অধিনায়কের জন্য কাজটা অনেক কঠিন; বিশেষ করে সেই পরাজয় যদি আসে চির প্রতিদ্বন্দ্বি পাকিস্তানের কাছ থেকে।

তাই সংবাদ সম্মেলনটা নিজের জন্য সুখকর না হওয়ারই কথা ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলির জন্য।  ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণীতে বেশ সাবলীলভাবে সব সামলে নিয়েছেন কোহলি।  সাংবাদিক বাউন্সার-হুকের প্রথম প্রশ্নটাতেই একরকম প্যাঁচ লেগে গেল!

প্রশ্নটা হলো ফখর জামানকে নিয়ে। প্রায় অচেনা-অখ্যাত জামান এক সেঞ্চুরিতে ভারতকে অর্ধেকটা ছিটকে দিয়েছেন ম্যাচ থেকে। অথচ আউট হতে পারতেন ৩ রানে। জসপ্রীত বুমরার বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়েছেন। পরে আম্পায়ারের নো-বল ঘোষণা বাঁচিয়ে দেয় এই ওপেনারকে। শেষ পর্যন্ত ১০৬ বলে ১১৪ রান করেছেন।

এ নিয়ে এক সাংবাদিক প্রশ্ন করেছিলেন। কোহলিও করলেন পাল্টা প্রশ্ন। প্রশ্ন-পাল্টা প্রশ্নের বাউন্সার-পুল-হুক চলল। কে বাউন্সার দিচ্ছে আর কে তা সামলাচ্ছে, বলা কঠিন ছিল।

তবে একপর্যায়ে সেই সাংবাদিক লেজেগোবরে করে ফেললেন। সাংবাদিক ও কোহলির বাক্যবিনিময় হুবহু তুলে দিয়েছে ভারতের ডেকান ক্রনিকলস। তা জুমবাংলার পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো।

সাংবাদিক : ক্যাপটেন, টস জিতলেন, এরপর নো-বলে একটা উইকেট। এই ম্যাচে মাঠে কোনো সুখকর মুহূর্ত কি ছিল আপনার জন্য?
কোহলি : কোনো কী? সুখকর মুহূর্ত?
সাংবাদিক : সুখকর মুহূর্ত। টস জিতলেন, এরপর নো-বলে একটা উইকেট। এই ম্যাচে মাঠে কোনো সুখকর মুহূর্ত কি ছিল আপনার জন্য?
কোহলি : এই ম্যাচে কোনো সুখকর মুহূর্ত? কার জন্য?
সাংবাদিক : আপনার।
কোহলি : নো-বল কীভাবে আমার জন্য কোনো সুখকর মুহূর্ত হতে পারে?
সাংবাদিক : কারণ, ওই বলে উইকেট পেলেন।
কোহলি : এটা কোনো প্রশ্ন হলো? কী হচ্ছে এসব!

Advertisements