অন্যরকম খবর

ঈদের পোশাকে বাহুবলীর সাথে হুররামের তুমুল লড়াই!

সপ্তাহ খানেক পরেই ইসলাম ধর্মের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব ঈদুল-ফিতর। মার্কেটগুলোতে এখন চলছে শেষ মুহূর্তের কেনাকাটার ব্যস্ততা। রাজধানীর নিউমার্কেট, বঙ্গবাজারসহ যমুনা ফিউচার পার্ক, বসুন্ধরা শপিংমলে বর্তমানে উপচে পড়া ভিড়। শেষ মুহূর্তে ক্রেতারা বেছে নিচ্ছেন পছন্দের ঈদ পোশাক।বিগত কয়েক বছরে প্রতি ঈদের পোশাকের ক্ষেত্রে বিশেষ নাম থাকাটা যেনো একটা কৃত্রিম ঐতিহ্যে পরিণত হয়েছে।

সাধারণত বিভিন্ন জনপ্রিয় মেগা সিরিয়াল বা কোন সিনেমার নাম বা কোন চরিত্রের নামকরণ করে পোশাকগুলো বাজারে ছাড়া হয়। বিগত কয়েক বছর বাজার দাপিয়ে বেড়িয়েছে পাখি, কিরণমালা, বাজিরাও মাস্তানিসহ আরো অনেক পোশাক। এবার ঈদের বাজারে তুমুল জনপ্রিয়তা পেয়েছে বাহুবলি-টু আর হুররাম সুলতান ড্রেস। বিক্রেতারা বলছেন, বাজারে বাহুবলি-টু আর হুররামের ব্যাপক লড়াই চলছে।শুধু রাজধানী নয় দেশের বিভিন্ন বিভাগীয় শহরেই বিভিন্ন নামে বিক্রি হচ্ছে ঈদের পোশাক।

বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় মেগা সিরিয়াল হলো সুলতান সুলেমান। দেশে সুলতান সুলেমান জনপ্রিয়তা পাওয়ার পর থেকেই আলোচনায় এসেছেন অটোম্যান সম্রাজ্যের সুন্দরী সুলতানা হুররাম সুলতান। অন্যদিকে বলিউডের সিনেমা বাহুবলী-২ ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। আর ঈদের বাজারে পোশাক বিক্রেতারা এই নাম দুটি ব্যবহার করে ব্যবসায়িক ফায়দা লুটছেন।

সচেতন ক্রেতারা বলছেন, জনপ্রিয় নাম ব্যবহার করে মূলত সাধারণ মানুষকে আকৃষ্ট করা হচ্ছে। পোশাকগুলোর কোন বিশেষ ডিজাইন নেই। যে কোন পোশাকের গায়েই তকমা লাগিয়ে দেয়া হচ্ছে বাহুবলি-২ বা হুররাম সুলতান। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বেশকিছু বিক্রেতা জানান, বিভিন্ন সিনেমা, সিরিয়ালগুলো দেখে ক্রেতাদের মধ্যে চরিত্রগুলোর প্রতি একটা আকর্ষণ সৃষ্টি হয়। সেখান থেকেই পোশাকের নামকরণের বিষয়টি আসে। বাজার ঘুরে দেখা গেছে, চলতি বছর তরুণীরা গাউন ধাঁচের পোশাক বেশি পছন্দ করছেন। বাজারের বেশিরভাগ গাউন এবং কাজ করা পোশাকগুলোর নামকরণ করা হয়েছে হুররাম-বাহুবলি। গাউনের পাশাপাশি মেয়েদের পছন্দের তালিকা উঠে এসেছে লেহেঙ্গা। আর বরাবরের মতো এবারো বাজার ধরে রেখেছে লং কামিজ।