বিনোদন

ইসলামি চেতনায় আমি নতুন জীবন পেয়েছি : অস্কারজয়ী এ আর রাহমান

সংগীত-বিশ্বের উজ্জ্বল নক্ষত্র ভারতীয় সংগীত পরিচালক ও শিল্পী এ আর রাহমান নিজের সাফল্যের পেছনে ইসলামী ভাবধারার অবদানের কথা জানালেন। বৃহস্পতিবার রয়টার্সকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে একথা জানান তিনি। অস্কারজয়ী এ শিল্পী বলেন, ‘ইসলাম একটি সাগরের মতো।

তে অনেক রকম ভাবধারা রয়েছে। প্রায় ৭০টির মতো ধারা রয়েছে মুসলিমদের। আমি তার ভেতরে সুফি ভাবধারাকে বেছে নিয়েছি। সুফিবাদ প্রেমের কথা বলে। মানুষে মানুষে ভালোবাসার কথা বলে। আজ আমি যে অবস্থানে রয়েছি তার পেছনে সবচেয়ে বড় অবদান আমার ধর্মীয় বিশ্বাস ও মূল্যবোধের।’

দক্ষিণ ভারতের এক হিন্দু পরিবারে জন্ম নেয়া রাহমানের পিতৃপ্রদত্ত নাম ছিল এ এস দীলিপ কুমার। তার বাবার মৃত্যুর পর চরম অর্থসঙ্কটের মুখোমুখি হয় রাহমানের পরিবার। ১৯৮৪ সালে যখন তার বয়স নয় বছর, তখন বোনের অসুস্থতার সময় কাদেরিয়া তরিকার ইসলামী ভাবধারার সঙ্গে পরিচিত হন তিনি।

পরবর্তীতে ২০ বছর বয়সে পরিবারের সবাইকে সঙ্গে নিয়ে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন। এ আর রাহমান আরো বলেন, ‘ইসলামী চেতনা আমাকে বদলে দিয়েছে। আমাকে নতুন জীবন দিয়েছে।’ এ মুহূর্তে বিশ্বজুড়ে যে হানাহানি ও সন্ত্রাসবাদ তার পেছনে বিশ্ব-রাজনীতিকেই দায়ী করেছেন এ তারকা।

এর জন্য ইসলামকে দায়ী করা যাবে না- এমনটাও বলেছেন তিনি। উল্লেখ্য, ‘রোজা’, ‘বোম্বে’, ‘তাল’ ও ‘লগন’ সহ একাধিক ভারতীয় সিনেমায় প্লে­ব্যাক করেছেন এ আর রাহমান। ড্যানি বয়েল পরিচালিত ‘স্লামডগ মিলিওনিয়ার’ সিনেমার জন্য জিতেছেন অস্কার।

এছাড়াও তার ঝুলিতে রয়েছে গোল্ডেন গ্লোব ও গ্র্যামির মতো নামী দামী পুরস্কার। চলতি বছর সংগীতাঙ্গনে ২৫ বছর পূর্ণ করেছেন বিশ্বখ্যাত এ তারকা। এ উপলক্ষে ‘ইয়েসটারডে, টুডে, টুমরো’ শিরোনামে বিশ্ব সংগীত ভ্রমণে বেরিয়েছেন তিনি। ৮ই জুলাই পর্দা উঠেছে এ বিশ্ব সংগীত ভ্রমণের।

এতে এ আর রাহমান ছাড়াও আরো গাইছেন মিক জ্যাগার, সারাহ ব্রাইটম্যান ও পুসিক্যাট ডলস’য়ের মতো বিশ্ব তারকারা। লন্ডনের ওয়েম্বলি এসএসই প্রাঙ্গণে বসেছে এর প্রথম আসরটি। ১৪ই জুলাই নিউইয়র্কে অনুষ্ঠিতব্য ১৮তম আইফা উৎসবেও গান গাইবেন রাহমান ও তার দল।