Advertisements
বিনোদন

ইমরান হাশমির বিপরীতে ফারিয়া এবং শাকিব-কোয়েলের তুমি আর আমি! সত্য না মিথ্যা?

বাঙালিকে চমকে দেওয়া সহজ। চমক পেতে তারা উদগ্রীব। গণমাধ্যমে প্রকাশিত/প্রচারিত চমক ও চটকদার খবরগুলো তারা লুফে নেন। কিন্তু বাস্তবতা হলো, বছরের পর বছর পেরিয়ে গেলেও সেই খবরগুলোর সত্যতা পাওয়া যায় না।

কিছুদিন পরপর এমন কিছু চলচ্চিত্রের ঘোষণা আসে, যেগুলো আটকে থাকে ঘোষণায়, গড়ায় না শুটিং ফ্লোর পর্যন্ত। ঘোষণায় চমক দিয়েই সংশ্লিষ্টরা ঢুকে পড়েন ইতিহাসের পাতায়। পাঠকও অন্য খবরের ভিড়ে ভুলে যান ‘বড় খবর’গুলো। খবর : বাংলা নিউজের।

‘মাধুরী দীক্ষিতের সঙ্গে মোশাররফ করিম’, ‘ইমরান হাশমির বিপরীতে নুসরাত ফারিয়া’, ‘শাকিব-কোয়েলের ছবি ‘তুমি আর আমি’ কিংবা ‘কোয়েল-বাপ্পির ‘স্বর্গীয় প্রেম”— এমন শিরোনামের খবরগুলো বিভিন্ন সময়ে চাওর হয়েছিলো মিডিয়ায়। তারপর কি হলো? কেউ কি জানেন? বাংলানিউজের পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো তেমন কিছু আওয়াজ-সর্বস্ব খবরের খবর।

বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা ইমরান হাশমির সঙ্গে নায়িকা হয়ে অভিনয় করতে যাচ্ছেন বাংলাদেশের মডেল ও অভিনেত্রী নুসরাত ফারিয়া। ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বরে প্রকাশিত এমন খবরে হৈ চৈ পড়ে যায়। সংবাদে বলা হয়েছিলো, ফারিয়া অভিনীত ‘আশিকী’ ছবির সেটে ‘গাওয়াহ- দ্য উইটনেস’র কাস্টিং পরিচালক অপূর্ব যোসেফের নজরে পড়েন তিনি। সেখানেই তার সঙ্গে অভিনয়ের ব্যাপারে কথা হয়।

ছবিটি পরিচালনা করার কথা ছিলো বিষ্ণু দত্তর। ইমরান হাশমি ছাড়াও সেখানে বলিউড তারকা নওয়াজুদ্দিন সিদ্দিকীরও অভিনয় করার কথা। দেশীয় গণমাধ্যমের পাশাপাশি ভারতীয় টাইমস অব ইন্ডিয়ায় এটি বেশ গুরুত্বের সঙ্গে প্রকাশ করা হয়েছিলো।

ইমরান হাশমি-নুসরাত ফারিয়া জুটির ‘গাওয়াহ- দ্য উইটনেস’-এর শেষ খবর কী? ‘আওয়াজ’-এই আটকে আছে দু’ বছর আগে ঘোষণা দেওয়া ছবিটি। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া তথা সংশ্লিষ্টরাই এর ভবিষ্যৎ সম্পর্কে জানেন না, পাঠক তো দূর…

২০১২ সালে একটি ঘোষনা দেওয়া হয়েছিলো। ঢাকার ছবিতে প্রথমবারের মতো অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হতে যাচ্ছেন কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেত্রী কোয়েল মল্লিক। শাবানার স্বামী ওয়াহিদ তারেকের এসএস ফিল্মসের ব্যানারে নির্মিতব্য এই ছবির নাম হবে ‘তুমি আর আমি’। ছবিতে কোয়েল অভিনয় করবেন কিংখান শাকিব খানের বিপরীতে। আবদুল্লাহ জহির বাবুর কাহিনিতে ছবিটি পরিচালনা করবেন নার্গিস আকতার। ছবিটি বাংলাদেশ ও কলকাতার যৌথ প্রযোজনায় তৈরি হবে। এখন পর্যন্ত সেই ছবি আলোর মুখ দেখেনি। আলোচনার টেবিলেই রয়ে গেছে বিষয়টি। এ ছাড়া ২০১৬ সালে এই জুটিকে জরিয়ে আরেকটি খবর বের হয়েছিলো। কথা ছিলো ‘বিদ্রোহী’ নামের ছবিতে অভিনয় করবেন তারা, প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ ও এসকে। এটিও ‘বাতিল’ খবর এখন।

২০১৫ সালে আরেকটি খবর বের হয়। ‘স্বর্গীয় প্রেম’ নামে একটি ছবি নির্মাণ করবেন ওয়াজেদ আলী সুমন। এ ছবির কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করবেন বাপ্পী চৌধুরী। তার বিপরীতে থাকবেন কোয়েল মল্লিক।

পরিচালকের মন্তব্য ছিলো এমন, “স্বর্গীয় প্রেম ছবিতে কোয়েল মল্লিককে নেওয়া হবে। এ ব্যাপারে তার সঙ্গে প্রাথমিক কথাবার্তা হয়েছে। এপার বাংলার ছবিতে অভিনয়ের বিষয়টি নিয়ে তিনি ইতিবাচক সাড়াও দিয়েছেন। খুব শিগগিরই কলকাতায় গিয়ে তার সঙ্গে এ ব্যাপারে চূড়ান্ত কথা বলবো।”

বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবরটি গুরুত্বের সঙ্গে প্রকাশ করা হয়েছিলো। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ছবিটির ভবিষ্যৎ অন্ধকার। শাকিব বা বাপ্পী নয়, কোয়েল মল্লিকের দেখা পাননি অন্যরাও। শুধু শুধু এই নায়িকাকে ঘিরে মুখরোচক বিভিন্ন সংবাদ প্রকাশই সার।

বেশিদিন আগের খবর নয়। শিরোনাম ছিলো এমন, ‘মাধুরী দীক্ষিতের সঙ্গে মোশাররফ’।

ছবিটির নাম ঠিক করা হয় ‘সিতারা’। পরিচালক আশিষ কুমার রায়। আবুল বাশারের একটি গল্প থেকে নির্মিত হবে ছবিটি। খবরে বলা হয়েছিলো

ছবিটিতে মোশাররফ করিম অভিনয় করবেন মাধুরীর দেহরক্ষীর ভূমিকায়। কয়েক মাস কেটে গেলেও এ ছবির বিষয়ে নতুন কোনও তথ্য নেই। আদৌ কি দেখা হবে মাধুরী ও মোশাররফের?

সমালোচকদের মতে, ঘোষণায় চমক তৈরি করা খবরগুলো প্রকাশের বেলায় সাংবাদিকদের আরেকটু যত্মবান হতে হবে। প্রতিটি গণমাধ্যমেরই নিজস্ব পাঠকশ্রেণী রয়েছে। তাদের সামনে বিভ্রান্তিমূলক খবর পরিবেশন করা ঠিক নয়…

Advertisements