খেলা-ধুলা

ইতিহাস গড়তে এক পা দূরে রজার ফেদেরার

আগের সাত ম্যাচের সাতটিতেই থমাস বের্দিচকে হারিয়েছেন রজার ফেদেরার। সব মিলিয়ে ২৪ মুখোমুখিতে ফেদেরারের জয় ১৮টি। অভিজ্ঞতার হিসেবে বের্দিচ ধারের কাছেও নেই ফেদারেরের। কিন্তু ম্যাচটি যখন সেমিফাইনাল তখন সিরিয়াস না হওয়ার কোনো কারণ নেই। ডু অর ডাই ম্যাচে ফেদেরার জিতলেন ফেদেরারের মতোই।

৩৫ বছর বয়সী সুইস তারকা ৭-৬ (৭-৪), ৭-৬ (৭-৪) এবং ৬-৪ গেমে তিন সেট জিতে ফাইনালের টিকেট পান। ২০১২ সালের পর আবারও উইম্বলডন জেতার সুযোগ এসেছে ফেদেরারের সামনে। ফাইনালে ফেদেরারের প্রতিপক্ষ ক্রোয়েশিয়ার মারিন চিলিচ। এ নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো মেজর কোনো টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠেছেন চিলিচ। ২০১৪ সালে ইউএস ওপেনের ফাইনালে উঠে শিরোপা পেয়েছিলেন ২৮ বছর বয়সী চিলিচ।

ফাইনাল নিশ্চিত করে ফেদেরার বলেন,‘যেভাবে টুর্নামেন্ট খেলছি তা সত্যিই অসাধারণ। একই পারফরম্যান্স ধরে রাখতে পারলে আরেকটি শিরোপা জয়ের সম্ভাবনা থাকবে। আরেকটি ফাইনালে উঠতে পেরে সম্মানিত বোধ করছি। সেন্টার কোর্টে খেলার একটি চাপ ছিল। আমার বিশ্বাস হচ্ছে না যে আমি আবারও কাজটি করতে পেরেছি। টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলতে পেরে আমি বেশ খুশি।’

অষ্টম উইম্বলডন শিরোপার জন্য আর একটি জয় বাকি রজার ফেদেরারের। ভক্তরা আশা করতেই পারে চিলিচকে উড়িয়ে শিরোপা জিতবেন সুইস তারকা। তবে চিলিচকে হাল্কাভাবে নিলে ভুল করবেন ফেদেরার! কারণ সেমিফাইনালে স্যাম কোয়েরিকে হারিয়ে উইম্বলডনের ফাইনালে উঠেছেন মারিন চিলিচ। সেন্টার কোর্টে ২ ঘণ্টা ৫৬ মিনিটের লড়াইয়ে চিলিচ ম্যাচ জেতেন ৬-৭ (৬-৮), ৬-৪, ৭-৬ (৭-৩), ৭-৫ গেমে।

Advertisements