Advertisements
আন্তর্জাতিক রাজনীতি

‘আমার মেয়ে বিএনপি করে, তার শ্বশুর আওয়ামী লীগ করে’

প্রয়াত বিএনপি নেতা কে এম ওবায়েদের স্ত্রী ড. শাহেদা ওবায়েদ বলেন, ‘আমার স্বামী ওবায়দুর রহমান পরবর্তীতে বিএনপি করেছেন। কিন্তু তার রাজনীতি শুরু হয়েছিল বঙ্গবন্ধুর হাত ধরে আওয়ামী লীগ দিয়ে। সে কারণে আমাকে অনেকে বিএনপির ব্র্যাকেটে ফেলে দেন। কিন্তু আমি আজ অবধি, কোনো রাজনৈতিক দলের প্রাথমিক সদস্যও না। কাল কী হবে, জানি না।’

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর সেগুনবাগিচাস্থ ঢাকা রিপোটার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) মিলনায়তনে এক সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

ড. শাহেদা ওবায়েদ বলেন, ‘আমার মেয়ে বিএনপি করে, এটা সত্য। ৪০ বছরের একটা মেয়ে কী করবে, কোন রাজনীতি করবে, সেটা তার ব্যাপার। কিন্তু জেনে রাখা ভালো, তার শ্বশুর আওয়ামী লীগ করেন, শ্বশুরের পরিবারের সবাই আওয়ামী লীগ করেন।’

বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালে জামায়াতের গাড়িতে জাতীয় পতাকা তুলে দিয়ে দেশে সন্ত্রাসবাদের শুরু হয়েছিল বলে মন্তব্য করেন শাহেদা ওবায়েদ। তিনি বলেন, ‘আমি মুক্তিযুদ্ধের সময় ঢাকা কলেজে প্রভাষক হিসেবে যোগ দিই। তখন দেখেছি ওই জামায়াতের নেতারা কীভাবে যুদ্ধাপরাধ করেছে, মানবতাবিরোধী অপরাধ করেছে। সেই জাতীয় মানবতাবিরোধীদের গাড়িতে জাতীয় পতাকা তুলে দিয়ে সন্ত্রাসবাদের শুরু করেছিলেন।’

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার লন্ডন সফর প্রসঙ্গে শাহেদা বলেন, ‘তিনি যখনেই বাইরে যান, তখনই একটা প্রেসক্রিপশন নিয়ে আসেন এবং দেশে এসে নৈরাজ্য চালান। এইবারও হয়তো তিনি ডিজিটাল প্রশিক্ষণ নিয়ে এসে হত্যা, নৈরাজ্য ও সন্ত্রাসবাদ চালাবেন।’

আলোচনা সভায় আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন তালুকদার মোহাম্মদ ইউনুস এমপি, তাঁতীলীগের কার্যকরী সভাপতি সাধনা দাশগুপ্ত ও আরও অনেকে।

Advertisements





সর্বশেষ খবর